এবারের আইপিএলে থাকছে ১১টি নতুন নিয়ম 

খেলাধুলা

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব না কমায় ভারতের বদলে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হবে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টে খেলোয়াড়দের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু নিয়ম বা প্রটোকল তৈরি করেছে কর্তৃপক্ষ।

এবারের আইপিএলে বরাবরের মতো বিভিন্ন দেশ থেকে ক্রিকেটার ও সংশ্লিষ্টরা আরব আমিরাতে আসবেন। ফলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থেকেই যায়। করোনার সংক্রমণ রোধে ‘স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি)’ শিরোনামে ১৬ পৃষ্ঠার বিশদ নিয়মকানুন প্রকাশ করেছে আইপিএল কর্তৃপক্ষ। পুরো আসরজুড়েই সব খেলোয়াড় ও ফ্র্যাঞ্চাইজিকে এই নির্দেশনা মানতে হবে।

এই নিয়মগুলো হলো–

১. আরব আমিরাতে আইপিএল খেলতে যাওয়ার আগে প্রতিটি দলের সব খেলোয়াড় ও স্টাফদের অন্তত পাঁচবার বাধ্যতামূলক কোভিড-১৯ টেস্ট করাতে হবে।

২. টুর্নামেন্ট চলাকালীন প্রতি পাঁচ দিন পর পর করোনা টেস্ট করাতে হবে।

৩. প্রতিদিন ক্রিকেটারদের দেহের তাপমাত্রা মেপে তার তথ্য আয়োজকদের কাছে সরবরাহ করতে হবে।

৪. প্রতিটি খেলোয়াড়ের স্বাস্থ্যবিষয়ক তথ্য প্রদানের পর খেলতে নামার অনুমতি মিলবে।

৫. প্রতিটি ম্যাচের দিন খেলোয়াড়ের দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিষয়ক সব প্রশ্নের উত্তর সন্তোষজনক হলে তখনই কেবল তার মাঠে নামার অনুমতি মিলবে। এর ব্যত্যয় ঘটলেই করোনা টেস্ট করানো হবে।

৬. নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় কারো মাঝে অস্বাভাবিক কিছু দেখা দিলে তখনই ওই খেলোয়াড়কে আইসোলেশনে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

৭. সব খেলোয়াড়কে ম্যাচের দিন হোটেল থেকেই যথাযথভাবে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত হয়ে মাঠে আসতে হবে। ড্রেসিংরুমে বেশি সময় ব্যয় করা যাবে না।

৮. প্রতিটি ক্রিকেটারকে প্রতিবার যাত্রার পর নিজ নিজ ব্যাট-বল, প্যাডসহ ক্রিকেটের সকল সরঞ্জামগুলো ব্যাগে গুছিয়ে রাখতে হবে।

৯. ম্যাচ শুরুর আগে দুই অধিনায়ক টসের সময় চিরন্তন নিয়ম মেনে ছাপানো তালিকার বদলে ইলেকট্রনিক তালিকার মাধ্যমে নিজেদের একাদশ বদল করবেন।

১০. খেলা চলাকালীন সময়ে পানি পানের বিরতিতে সব খেলোয়াড়কে তাদের নিজেদের নামে লেখা বোতল থেকেই পানি পান করতে হবে।

১১. মাঠে করোনার বিস্তার কমাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) বেঁধে দেয়া করোনা নিয়ম মানা বাঞ্ছনীয়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *