আগামী দুই বছরে তিন ফরম্যাটে শতাধিক ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ

খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক :

করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০ সালে খুব বেশি ক্রিকেট ম্যাচ খেলার সুযোগ পায়নি বাংলাদেশ। তবে আগামী দুই বছরে এই আক্ষেপ কমে আসবে অনেকটাই। সাদা বলের ক্রিকেট অর্থাৎ শুধু ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ২০২১ ও ২০২২ সালে প্রায় ১০০টি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। এছাড়া টেস্ট ম্যাচ খেলবে কমপক্ষে ১৪টি।

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে অন্তত ১৫টি ওয়ানডে ও ৩১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। পরের বছর খেলার কথা রয়েছে আরো ২০টি ওয়ানডে এবং ২৫টি টি-টোয়েন্টি। অর্থাৎ বর্তমান সূচি অনুযায়ী আগামী দুই বছরে ৯১টি ম্যাচ নিশ্চিত। এর বাইরে করোনার কারণে স্থগিত হওয়া সিরিজ যোগ হলে ও বিভিন্ন টুর্নামেন্টে পরের রাউন্ডে উত্তীর্ণ হলে ম্যাচ সংখ্যা নিশ্চিতভাবে বাড়বে। টেস্ট ম্যাচ তো থাকছেই।

আগামী দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) যে সূচি সাজিয়েছে সেই অনুযায়ী ২০২১-২২ সালে বেশ কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এর মধ্যে কয়েকটি সিরিজ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) নির্ধারিত ওয়ানডে সুপার লিগের বাইরে। মূলত বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে অতিরিক্ত কিছু সিরিজ নির্ধারণ করেছে বিসিবি।

এই সময়সীমার মাঝে এশিয়া কাপ ও দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচ রয়েছে। এসব আসরে সম্ভাব্য ম্যাচ সংখ্যা বিবেচনা করে ম্যাচের অংক বসানো হয়েছে। এছাড়া বিসিবি একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে যা এখনো চূড়ান্ত নয়।

একনজরে বাংলাদেশের ২০২১ সালের সিরিজ ও টুর্নামেন্টের তালিকা:

সিরিজ/প্রতিপক্ষ  সম্ভাব্য ম্যাচ সংখ্যা সম্ভাব্য সময়সীমা
ওয়েস্ট ইন্ডিজ (হোম)  তিনটি ওয়ানডে, তিনটি টেস্ট ম্যাচ এবং দুটি টি-টোয়েন্টি ৪ জানুয়ারি থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি
নিউজিল্যান্ড (এওয়ে)  তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০ মার্চ
শ্রীলংকা (হোম)  তিনটি ওয়ানডে ১৮-২৯ মে
এশিয়া কাপ (স্বাগতিক চূড়ান্ত নয়)  কমপক্ষে ছয়টি ম্যাচ জুন
জিম্বাবুয়ে (এওয়ে)  তিনটি ওয়ানডে, দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ১৮ জুন থেকে ২৮ জুলাই
অস্ট্রেলিয়া (হোম)  তিনটি টি-টোয়েন্টি ৬-১৪ সেপ্টেম্বর
ইংল্যান্ড (হোম)  তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ১১ অক্টোবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (ভারত)  অন্তত ৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা অক্টোবর- নভেম্বর
পাকিস্তান (হোম)  দুটি টেস্ট ম্যাচ এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি ১৬ নভেম্বর থেকে ১৪ ডিসেম্বর

একনজরে বাংলাদেশের ২০২২ সালের সিরিজ ও টুর্নামেন্টের তালিকা:

সিরিজ/প্রতিপক্ষ  সম্ভাব্য ম্যাচ সংখ্যা সম্ভাব্য সময়সীমা
আফগানিস্তান (হোম)  তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৬ মার্চ
দক্ষিণ আফ্রিকা (এওয়ে)  তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট ম্যাচ ৯ মার্চ থেকে ১০ এপ্রিল
ওয়েস্ট ইন্ডিজ (এওয়ে)  তিনটি ওয়ানডে, দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ৬ জুন থেকে ১৭ জুলাই
জিম্বাবুয়ে (এওয়ে)  পাঁচটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ২৯ জুলাই থেকে ৩০ আগস্ট
এশিয়া কাপ (স্বাগতিক চূড়ান্ত নয়)  কমপক্ষে ছয়টি ম্যাচ সেপ্টেম্বর
নিউজিল্যান্ড (হোম)  তিনটি ওয়ানডে, একটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ২-৩০ অক্টোবর
অস্ট্রেলিয়া (টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ)  অন্তত ৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা নভেম্বর
ভারত (হোম)  দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে ২১ নভেম্বর থেকে ১৬ ডিসেম্বর

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *