ফুটপাতের কম দামের পোশাকই আমাদের শেষ ভরসা

0
59

শহর প্রতিনিধি:

শীতের তিব্রতা যত বাড়ছে ততই বাড়ছে ফুটপাতের গরম কাপড় বিক্রির তোড়জোড়। নিন্ম সম্প্রদায়ের মানুষরা ছুটছে রাস্তার পাশের ফুটপাতের দোকানে তাদের পছন্দের গরমের পোশাক কিনতে। সাতক্ষীরা সদরের পোষ্ট অফিস মোড় এলাকার ফুটপাতের কাপড় ব্যবসায়ী আরিজুল ইসলাম। শনিবার বিকেলে তার দোকানে নিন্ম আয়ের মানুষের কাপড় কিনতে প্রচুর ভিড়। পছন্দের পোশাকটি কিনতে ব্যস্ত ক্রেতারা। সাধ্যের মধ্যে থেকেই বাজেট
অনুযায়ী কাপড় কিনছেন তারা। শিশু মহিলা সকলেই গরম কাপড় ক্রয়ের জন্য ব্যস্ত। সাদিকুর রহমান নামের এক ক্রেতা বলেন, আমি পেশায় ভ্যানচালক। শোরুমে গিয়ে বাচ্চাদের জন্য শীতের পোশাক কেনার মত টাকা আমার নেই। সেজন্য সাধ্যের মধ্য থেকে যেটুকু পারি বাচ্চাদের ও স্ত্রীসহ আমার গরম কাপড় কিনতে এসেছি। ৪-৫শ টাকার মধ্যেই সব কিনবো। অন্যদিকে মহিলা ক্রেতা বিলকিস জানান, তিনি তার মেয়ের জন্য একটি শীতের পোশাক কিনবেন। গরীব মানুষ কি করবো বলুন। ফুটপাতের কম দামের পোশাকই আমাদের মত মানুষের শেষ ভরসা। এদিকে, দোকানদার আরিজুল ইসলাম বলেন, শীতের তিব্রতা বাড়ার সাথে সাথেই বেচাকেনার হারও বেড়েছে। নিন্ম আয়ের মানুষরা তাদের পোশাক কিনে নিয়ে যায় এখান থেকে। প্রতিদিন ৪-৫ হাজার টাকার কেনা বেচা হচ্ছে। অন্যদিকে, সাতক্ষীরা আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়া বিদ মল্লিক শফিকুল ইসলাম বলেন, আজ সাতক্ষীরার সর্বনিন্ম তাপমাত্রা ছিলো ৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়ার্স।কয়েকদিনের মধ্যেই আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটবে এমনটা আশা করা হচ্ছে।