দেবহাটায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্র উদ্বোধন

দেবহাটা প্রতিনিধি:

জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের এবাদাত, ইসলামিক জ্ঞান চর্চা, গবেষনাসহ ইসলামিক সংস্কৃতির সম্প্রসারণের জন্য উন্মুক্ত হলো সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা সহ সারাদেশে নব নির্মিত ৫০টি মডেল মসজিদ।
২০১৪ সালের নির্বাচনী ইশতেহারে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা ব্যায়ে দেবহাটা উপজেলাসহ সারাদেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (১৬ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গনভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সারাদেশে দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্মিত ৫০ টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্র একযোগে উদ্বোধন করেন।

অনুমোদিত প্রকল্পের নকশা অনুযায়ী ৪০ শতাংশ জায়গার উপর সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে জেলা পর্যায়ে চারতলা ও উপজেলার জন্য তিনতলা এবং উপকূলীয় এলাকায় চারতলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে।

প্রতিটি মডেল মসজিদ নির্মাণের জন্য জেলা শহর ও সিটি করপোরেশন এলাকায় ১৫ কোটি ৬১ লাখ ৮১ হাজার টাকা, উপজেলা পর্যায়ে ১৩ কোটি ৪১ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং উপকূলীয় এলাকায় ১৩ কোটি ৬০ লাখ ৮২ হাজার টাকা ব্যয় নির্ধারণ করে প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

এসব মডেল মসজিদে নারী-পুরুষের পৃথক ওজু ও নামাজ আদায়ের সুবিধা, প্রতিবন্ধী মুসল্লিদের টয়লেটসহ নামাজের পৃথক ব্যবস্থা, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, ইসলামিক লাইব্রেরি, অটিজম কর্নার, ইমাম ট্রেনিং সেন্টার, ইসলামিক গবেষণা ও দীনি দাওয়া কার্যক্রম, হেফজখানা, শিশু ও গণশিক্ষার ব্যবস্থা, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আবাসন ও অতিথিশালা, মরদেহ গোসল ও কফিন বহনের ব্যবস্থা, হজ্জ যাত্রীদের নিবন্ধনসহ প্রশিক্ষণ, ইমামদের প্রশিক্ষণ ও গাড়ি পার্কিং, ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসনসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

দেবহাটা উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্রের উদ্বাধনী অনুষ্ঠানে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ূন কবির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সজীব খান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুজিবর রহমান, ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার রহিমা খাতুন বুশরা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জিএম স্পর্শ, কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আছাদুল হক, পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক বাবু, সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন সাহেব আলী, দেবহাটা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন বকুলসহ বিভিন্ন দপ্তরের অফিসার ও ধর্মপ্রান মুসল্লীরা উপস্থিত ছিলেন।

দেবহাটা উপজেলা মডেল মসজিদটি ছাড়াও ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও নগরকান্দা, গাজীপুরের কাপাসিয়া, গোপালগঞ্জের সদর উপজেলা, কিশোরগঞ্জের সদর ও কটিয়াদি, মানিকগঞ্জের ঘিওর ও সাটুরিয়া, নরসিংদীর সদর উপজেলা ও মনোহরদি, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ও জেলা সদর, শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলা, বগুড়ার ধুনট ও নন্দীগ্রাম, নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলা, নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলা, পাবনার ভাঙ্গুরা, সিরাজগঞ্জের কাজিপুর, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন, রংপুরের গঙ্গাচড়া ও কাউনিয়া, ঠাকুরগাঁওয়ের সদর উপজেলা, শেরপুর সদর, পিরোজপুর সদর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর ও কসবা, খাগড়াছড়ির সদর ও মানিকছড়ি, কুমিল্লার চান্দিনা ও চৌদ্দগ্রাম, খুলনার রূপসা, কুষ্টিয়ার খোকশা ও ভেড়ামারা, মেহেরপুর জেলা সদর ও গাংনী, সিলেটের গোয়াইনঘাট, সুনামগঞ্জ জেলা সদর ও জগন্নাথপুর এবং হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্মিত মডেল মসজিদ গুলো একযোগে উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Please follow and like us:
Tweet 20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)