পুজামন্ডপ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় প্রথম আলোর বন্ধুসভার মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি:
কুমিল্লা,চট্রগ্রাম,চাঁদপুর,নোয়াখালী,সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় পুজা মন্দির ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা,ভাংচুর,লুটপাটের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার প্রথম আলো বন্ধুসভার আয়োজনে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।সকাল ১০টা থেকে ১২ ঘন্টা দুই ঘন্টার এ কর্মসূচির সঙ্গে একত্বতা প্রকাশ করে মনববন্ধনে অংশ নেয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা স্বদেশ,প্রেরণা নারী উন্নয়ন সংগঠন,আইন ও সালিশ কেন্দ্র,এইচআরডিএফ-সাতক্ষীরাসহ মুক্তিযোদ্ধা,শিক্ষক,সাংস্কৃতিক কর্মী,সাহিত্যিক,কবি,আইনজীবী,সাংবাদিক,ছাত্র-ছাত্রী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

প্রথম আলো বন্ধুসভার সাতক্ষীরার সভাপতি মরিয়াম কেয়ার সভাপতিত্বে ও সহসভাপতি রবিউল ইসলামের স লনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার,প্রেসক্লাবের সভাপতি মমতাজ আহমেদ,কবি ও সাহিত্যিক স ম তুহিন,সাতক্ষীরা নাগরিক আন্দোলন মে র সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান,সাংবাদিক এম,কামরুজ্জামান,সেলিম রেজা, মানবাধিকার কর্মী মাধব দত্ত,উদীচি শিল্পগোষ্ঠীর সভাপতি শেখ সিদ্দিকুর রহমান,কেন্দ্রীয় ছাত্র লীগের কার্যকরী পরিষদের সদস্য আসিফ শাহবাজ খান,সাতক্ষীরা রাসেল স্মৃতি সংসদের সভাপতি রাশেদুজ্জামান,হেড সংস্থার নির্বাহী পরিচালক লুইস রানা গাইন,প্রথম আলো বন্ধু সভা সাতক্ষীরার সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন,প্রচার সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান,পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক মৌতাষি চ্যাটার্জী ও প্রথম আলোর সাতক্ষীরার নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জি প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন,কুমিল্লা ও পীরগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামন্দির,প্রতিমা,হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের বাড়িঘর ভাংচুর ও হামলা করা হয়েছে তা কোন স্বাধীন দেশে হতে পারে না। মুক্তিযোদ্ধার চেতনা বিশ^াসী বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে এ ধরণের ঘৃর্ণ ও জঘন্য কর্মকান্ড কোনো বিবেকমান মানুষ মেনে নেবে।অস্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল মানুষের জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা না গেলে এমন ঘটনা ঘটতেই থাকবে।দেশে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় ও সংখ্যালঘুদের আস্তা প্রতিষ্ঠিত করতে হলে অবিলম্বে এসব ঘটনায় জড়িতদের শানক্ত ও গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির কোনো বিকল্প নেই।

Please follow and like us:
Tweet 20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)