সাইফুল্লাহ্ লস্করের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকীতে জেলা ভূমিহীন সমিতির দোয়া ও শোক র‌্যালি

বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি ও সাতক্ষীরা জেলা ভূমিহীন সমিতির প্রধান উপদেষ্টা কৃষকনেতা সাইফুল্লাহ্ লস্করের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সাতক্ষীরা জেলা ভূমিহীণ সমিতির উদ্যোগে দোয়া অনুষ্ঠান ও শোক র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৫ ডিসেম্বর রোববার বিকালে সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে অনুষ্ঠিত দোয়া ও শোক র‌্যালিতে সভাপতিত্ব করেন, জেলা ভূমিহীন সমিতির সভাপতি মো: কওছার আলী।
সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি মো: মফিজুর রহমান, মো: আরমান আলী, মহিলা সম্পাদিকা নাজমা খাতুন, নেত্রী নাজমা আক্তার নদী, সদর উপজেলা ভূমিহীন সমিতির সাধারণ সম্পাদক মীর আশিক ইকবাল বাপ্পি, সহ-সভাপতি মো: ইউসুছ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, ১৩নং লাবসা ইউনিয়ন ভূমিহীন সমিতির সভাপতি রেজাউল ইসলাম প্রমুখ।
এর আগে বৃষ্টি উপেক্ষা একটি শোক র‌্যালি শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
এসময় বক্তারা বলেন, বিগত ২০০৯ সালের ৫ ডিসেম্বর সাতক্ষীরায় ভূমিহীন আন্দোলনের অগ্নি পুরুষ সাইফুল্লাহ লস্কার কে শ্বাসরোধ করে গুপ্তহত্যা করা হয়। কৃষক নেতা সাইফুল্লাহ লস্কর হত্যার এগারো বছর অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি হত্যাকারীদের পুলিশ গ্রেফতার করেনি ও মামলার কোন সন্তোষজনক পদক্ষেপ নেই।
তিনি শোষিত-বি ত, নিপীড়িত-নির্যাতিত মানুষের পাশে থেকে লড়াই-সংগ্রাম করেছেন। তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সংগঠন-সংগ্রাম করেছেন।
বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সরকারি দলের লোকজন প্রশাসনকে কাজে লাগিয়ে ভূমিদস্যু ঘের মালিকরা সাতক্ষীরা জেলার হাজার হাজার একর খাস জমি দখল করে রাখেন। অপরদিকে গরীব মানুষ মাথা গোঁজার ঠাঁইটুকু হারিয়ে ভূমিহীনে পরিণত হয়েছে। কৃষক নেতা সাইফুল্লাহ লস্কর সাতক্ষীরা জেলাতে ভূমিহীন মানুষের একটু মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিতে ভূমিহীনদের মাঝে খাস জমি বিতরণের দাবী তোলেন এবং ভূমিহীন কৃষকদের এ ন্যায্য দাবী প্রতিষ্ঠার জন্য ভূমিহীন কৃষকদের সংগঠিত করে লড়াই-সংগ্রাম অব্যাহত রাখেন।
সাইফুল্লাহ লস্কর তার সারা জীবনের রাজনৈতিক কর্মকা-ের মাধ্যমে গণমানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার পথ দেখিয়েছেন। যেখানে অত্যাচার-নিপীড়ন, শোষণ-ব না সেখানেই লড়াইয়ে সাইফুল্লাহ্ লস্কর অগ্রসেনানীর ভূমিকা পালনে পিছপা হননি। বক্তারা অবিলম্বে এই কৃষক-শ্রমিক নেতার হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান।

Please follow and like us:
Tweet 20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)