পাটকেলঘাটায় ভ্যানচালকের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলাঃ আহত ৬

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধিঃ
পাটকেলঘাটায় জমিজায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ভ্যান চালক  শাহাজান মোড়ল ও ফিরোজ মোড়লের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে  আহসান হাবিবের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী। এসময় তারা  বসত বাড়িত হামলা ভাংচুর সহ অগ্নিসংযোগ করে তিনলক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করে। হামলায়  বাড়িতে থাকা গর্ভবর্তী গৃহববধু, নারী পুরুষ সহ ছয়জন আহত হয়। শুক্রবার সকাল আটটার দিকে পাটকেলঘাটা থানার জুজখোলা গ্রামের ইটভাটা সংলগ্ন এলাকায়  ঘটনাটি ঘটে।
হামলার স্বীকার শাহাজান মোড়ল জানায়, বরিশাল জেলার মৃত আব্দুর ছাত্তারের ছেলে আহসান হাবিব(৪৫) ও একই এলাকার আজগর আলীর (৫৪) সাথে রাজেন্দ্রপুর মৌজার ৫৩০/৫৩৬ দাগের  ১একর ২৩শতক জমি
নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে দেওয়ানি আদালতে মামলা চলমান রয়েছে ।  বছর দুই আগে আজগর আলী ভূয়া দলিল বানিয়ে আহসান হাবিবের কাছে বিক্রি করে সে জমি।  এরপর থেকে হাবিব এই জমি দখলের জন্য পায়তারা করতে থাকে। এ নিয়ে শালিশ দরবার বসেছে বহুবার। শুক্রবার সকালে আহসান হাবিব ওআজগার আলীর নেতৃত্বে৩০/৪০ জন  সন্ত্রাসী আমার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় তারা আমার  বাড়ি ভাংচুর করে ২লক্ষ নগদ টাকা সহ  স্বর্ণ গহনা লুট করে তিনলক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন করে।  প্রায় ঘন্টাব্যাপি আমাদের ব    ঘরবাড়িত ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে দখল যজ্ঞ চালায়। তাদের এই  হামলায়
 আমি সহ  ভাইয়ের গর্ভবর্তী  স্ত্রী মমতাজ বেগম (২৮) , ভাইপো  খাইরুল মোড়ল (২৮) , আত্মীয়  মাছুরা বেগম(৩৪) , ও সরবানু বিবি (৭০) চাচাতো ভাই  আতিয়ার, হোসেন মোড়ল(৪৩)আহত হয়।  স্থানীয়রা আমাদের  উদ্ধার করে ৪জনের অবস্তা গুরত্বর দেখে  তাদের  সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
তিনি আরো জানান, ঐ জমির এস এ রেকর্ডীয় মালিক আমি, বর্তমান মাঠ জরিপ আমার নামে রয়েছে ।  আজ আমার বাড়িতে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে যে ক্ষতিসাধন করেছে  তা পূরন হওয়ার নয়। আমি থানায় গিয়েছিলাম  পুলিশ অভিযোগ নিতেও গড়িমিসি করছে।  আমি এই ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।
গৃহবধু মমতাজ বেগম জানান, আমি ৭মাসের অন্তঃস্বত্তা।  আমার স্বামী ফিরোজ মোড়ল বিশেষ  কাজে ঢাকায় গেছে।
সকালে আমার বাড়িতে ভাত খেতে যাব ঐ সময়  একদল  সন্ত্রাসীরা বাড়িতে  হামলা চালায়। বাড়ির লোকজনদের বেদম  মারধোর করে, ছোট  বাচ্ছগুলোকে ছুঁড়ে ফেলে দেয় তারা। এ সময় তারা  বাড়ির ভিতরে থাকা আসবার পত্র ভাংচুর করে নগদ টাকা নিয়ে একটি ঘরে অগ্নিসংযোগও করে। হামলায় বাঁধাদিতে গেলে তারা দা দিয়ে কোঁপাতে যায় আমাদের দুজনের মাথায় ওপিঠে  কোপও দিয়েছে তার । পরবর্তীতে আমি ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিলে থানা পুলিশ আসে। পুলিশ আসলে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল থেকে  পালিয়ে যায়।
তবে প্রথমে থানা  পুলিশকে জানালে  ৩০মিনিট ব্যাপি দখল যজ্ঞে তারা   কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে  অভিযোগ করেন তিনি । ঘটনার বিষয়ে অভিযোগ অস্বিকার করেন আহসান হাবিব জানান, ২বৎসর আগে জৈনেক জুজখোলা গ্রামের আজগরের কাছ. ৪১শতাংশ জমি কিনেছিলাম আমি । এ নিয়ে  শালিশ দবরাব বসেছে কয়েকবার। বর্তমানে এ জমি নিয়ে আদালতে একটি মামলা চলমান রয়েছে সত্য ।  আজ সকালে কিছু লোকজন নিয়ে জমি মাপামাপি করতে গিয়েছিলাম। তবে আমি একটু পিলার আনার কাজে খলিষখালীদিকে যাচ্ছিলাম। এসময় কি ঘটেছে তা জানি।শাহাজানের বাড়ির লোকজন  নিজেরাই ঘরবাড়ি ভাংচুর চালিয়ে এসব নাটক করছে।
পাটকেলঘাটা থানা পরিদর্শক নাজমুল হুদা জানান, ঘটনাশোনা মাত্র পুলিশ গিয়ে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।  এ ঘটনায়  আহসান হাবিব নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে  এ বিষয়ে কেউ কোন  কোন লিখিত অভিযোগ বা  মামলা করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।
Please follow and like us:
Tweet 20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)