দেবহাটায় সাংসারিক কলহের জেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

দেবহাটা ফিচার

দেবহাটা প্রতিনিধি:

স্বামীর সাথে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে চলমান সাংসারিক কলহের জেরে দেবহাটায় ছাবিকুন্নাহার (২০) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। আত্মহননকারী গৃহবধূ ছাবিকুন্নার দেবহাটা উপজেলার বহেরা নতুন মসজিদ সংলগ্ন নজরুল গাজীর মেয়ে। শুক্রবার সকালে বহেরাস্থ পিতার বাড়ী থেকে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় ৪/৫ মাস আগে সদর উপজেলার ভোমরা গ্রামের আলমগীর হোসেনের সাথে বিয়ে হয় ছাবিকুন্নাহারের। তার সাথে বিয়ের আগেই আলমগীর তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়েছিলো। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই আলমগীর আবারো তার তালাকপ্রাপ্ত প্রথম স্ত্রীর ওপর আসক্ত হয়ে পড়ে এবং ছাবিকুন্নাহারকে লুকিয়ে প্রথম স্ত্রীর সাথে পুনরায় ঘর সংসার করতে মরিয়া হয়ে ওঠে। বিষয়টি নিয়ে বিগত কিছুদিন যাবৎ ছাবিকুন্নাহারের সাথে তার স্বামী আলমগীরের ঝগড়া চলে আসছিলো। সম্প্রতি সাবিকুন্নাহার তার পিতার বাড়ী বহেরাতে চলে আসে। ঘটনাটি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে চলমান বিবাদ নিরসনের জন্য আগামী রবিবার স্থানীয়ভাবে শালিসের দিন ধার্য করে তাদের অবিভাবক, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা। এরই মধ্যে শুক্রবার দিবাগত রাতের যেকোন সময়ে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে ছাবিকুন্নাহার ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। সকালে স্বজনরা তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখে দেবহাটা থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহটি উদ্ধার করে।

দেবহাটা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) উজ্জ্বল কুমার মৈত্র জানান, গৃহবধূর মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *