কালিগঞ্জের সীমান্তে ওয়াটার পার্ক ও ইকো পার্ক নির্মানের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে

কালিগন্জ
হাফিজুর রহমান শিমুলঃ
কালিগঞ্জ উপজেলার বসন্তপুরে একটি পার্ক ও যমুনা খালে একটি ওয়াটার ইকোপার্ক স্থাপনের জন্য মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে বুধবার (১৪ অক্টোবর)  বেলা ১২ টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সম্মেলন কক্ষে  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক রাসেল এর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিঃ সহ সভাপতি জননেতা সাঈদ মেহেদী, বিশিষ্ট সাহিত্যিক অধ্যাঃ গাজী আজিজুর রহমান, কালিগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক ও কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাস বাচ্চু,  মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইনসহ সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ  ও সুধীবৃন্দ  উপস্থিত ছিলেন। গুরুত্বপূর্ণ সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তার বক্তব্যে বলেন-যমুনা খাল খনন করে ওয়াটার পার্ক অনুভা চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে,  মানুষের সুস্থ বিনোদনের জন্য  নৌকা এবং বাইপাস সড়ক দিয়ে নিরাপদে সাধারণ মানুষ যাতায়াত করতে পারবে তার ব্যবস্থা করা হবে। তিনি বলেন যমুনা পাড়ে বসবাসকারীদের পুনর্বাসন করা হবে, প্রয়োজনে আমি নিজেই নৌকা বানিয়ে দিবো, যমুনা খাল ওয়াটার পার্ক ও বসন্তপুরে পর্যটন কেন্দ্র করতে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। প্রশাসনিকভাবে সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস দেওয়া হবে এমন প্রতিশুতি দিয়ে কালিগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক রাসেল বলেন কালিগঞ্জ উপজেলায় জনসাধারণের সুস্থ বিনোদনের জন্য কোন পার্ক না থাকায় বিষয়টি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল স্যারকে অবহিত করা হয়।  তিনি বসন্তপুরে চন্দ্রদেব ভবন উক্ত ভবনসংলগ্ন ইছামতি  তীরবর্তী অপূর্ব নৈসর্গিক স্থানে অবস্থিত সরকারের খাস খতিয়ানভুক্ত জমিতে একটি ইকো পার্ক স্থাপনের জন্য মৌখিকভাবে সম্মতি প্রদান করেন। এছাড়া কালিগঞ্জ যমুনা খাল  খনন করে ওয়াটার ইকোপার্ক তৈরীর জন্য দাবি তুলে ধরলে জেলা প্রশাসক মহোদয় মৌখিকভাবে সম্মতি প্রদান করেন। তিনি আরো বলেন শ্যামনগরে মুন্সীগঞ্জে আকাশ নীলা পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন রয়েছে, দেবহাটা উপজেলায় রূপসী বাংলা পিকনিক স্পট রয়েছে, আশাশুনিতে কেওড়া বাগান পার্ক রয়েছে, কালিগঞ্জের ক্ষেত্রে শূন্যতা বিরাজ করছে। কালিগঞ্জ উপজেলায় পর্যটনের বিকাশ ও মাদকের ছোবল হতে যুব সমাজের রক্ষা করতে সুস্থ বিনোদনের ব্যবস্থা করতে হবে।  আমি সেইলক্ষ্যে কাজ করছি। সাহিত্যিক গাজী আজিজুর রহমান ঐতিহ্যবাহী ইতিহাস খ্যাত রাজা প্রতাপাদিত্য ও বসন্ত রায়ের শাসনামলের ইতিহাস তুলে ধরে বলেন বসন্তের রায়ের নাম অনুসারে বসন্তপুর গ্রাম চন্দ্র ভবনে রাজাদের বসবাস ছিল, তিনি জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে পার্ক নির্মাণের উদ্যোগকে স্বাগত ও অভিনন্দন জানান। কালিগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক সুকুমার বাচ্চু বলেন   কালিগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীর ও সাংবাদিকদের উদ্যোগে বসন্তপুর পুরাতন কাস্টম ভবন সংলগ্ন রাম জননী ভবনে বনভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই অনুষ্ঠানে কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার ভূমি সহ সাহিত্যিক আজিজুর রহমানসহ লেখক-কবি শিল্পী সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। সেদিন সরকারি খাস জমিতে পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়।
সেই প্রস্তাবটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় আন্তরিকতার সহিত গ্রহণ করে পার্ক  বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। বসন্তপুর বিজিপি ক্যাম্প, নদীর উপারে ভারতের হিঙ্গলগঞ্জ, এপারে বাংলাদেশ।  ইছামতি, কাকশিয়ালী ও কালিন্দী নদীর ত্রিমোহনায় সুন্দর পরিবেশে এই পার্ক স্থাপন হলে ভ্রমণপিপাসু মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হবে। ইতিমধ্যে বিকাল হতে সন্ধ্যাবধী শতশত মানুষ দুইদেশের মনোরম দৃশ্য উপভোগ করে থাকেন। তবে সরকারীভাবে পার্কটি পৃষ্টপেশকতা পাইলে অন্য পিকনিকস্পটের তুলনায় বেশী আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।
Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *