সাতক্ষীরার আশাশুনিতে মৌলভী আব্দুল লতিফ কলেজের বন‍্যা আশ্রয়কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করলেন জন প্রশাসন সচিব

আশাশুনি

আসাদুজ্জামান:

সাতক্ষীরার উপকুলীয় উপজেলা আশাশুনিতে বন‍্যা প্রবন ও নদী ভাঙ্গন এলাকায় আশ্রায়কেন্দ্র নির্মান র্শীষক প্রকল্পের আওতায় দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের পিতার নামকরনে প্রতিষ্ঠিত মৗলভী আব্দুল লতিফ কলেজ বন্যা আশ্রায়কেন্দ্র নির্মান কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। আশাশুনি উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার দুপুরে উপজেলার খাজরা ইউনিয়নের গদাইপুর গ্রামে ৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ নির্মান কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন, জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে এ সময় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মহশীন আলী, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মুঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ইউসুফ আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মিসেস শাহানারা বেগম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসিম বরণ চক্রবর্তী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহীন সুলতানা, সহকারী পুলিশ সুপার (দেবহাটা সার্কেল) ইয়াসিন আলী প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জন প্রশাসন সচিব ইউসুফ হারুন বলেন, সর্বজন শ্রদ্ধেয় মৌলভী আব্দুল লতিফ আমাদের মাঝে বেঁচে নেই। কিন্তু তার নামে প্রতিষ্ঠিত ‘মৌলভী আব্দুল লতিফ কলেজের নাম কিয়ামত পর্যন্ত মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকবে। আশাশুনির নির্ভৃত পল্লীতে সুন্দর পরিবেশে গড়ে ওঠা কলেজটি এলাকার শিক্ষা বিস্তারে মাইল ফলক হিসাবে এগিয়ে যাবে সেই প্রত্যাশা আমাদের। তিনি বলেন, আম্ফানের তান্ডব ও করোনার আক্রমনের পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে সাতক্ষীরা জেলার দায়িত্ব দিয়েছেন। আমি সাতক্ষীরার মানুষ হয়ে এই জেলার দায়িত্ব পাওয়ায় এখানকার সার্বিক দিক সম্পর্কে অবগত হয়ে উন্নয়ন ও প্রয়োজনীয় কাজ করে আসছি। প্রতাপনগরের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা দেখেছি। কিছু ছোট খাট ভাঙ্গনের নির্মান কাজ স্থানীয় ও পাউবো’র উদ্যোগে করা হয়েছে। বড় ভাঙ্গনগুলোর দায়িত্ব সেনাবাহিনীর উপর দেওয়া হয়েছিল। এডিবির অর্থ দিয়ে নির্মান কাজ সম্ভব নয়। এজন্য বড় আকারের বাজেট করে উপকুলীয় এলাকার টেকসই বেড়ী বাঁধ নির্মানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা থেকে পটুয়াখালী পর্যন্ত টেকসই বেঁড়িবাধ নির্মান কাজের জন্য সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট হাতে নেওয়া হয়েছে। এ সময় জানানো হয়, ৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয় মৌলভী আব্দুল লতিফ কলেজ বন‍্যা আশ্রায়কেন্দ্র তিন তলা এই নতুন ভবন নির্মান কাজ বাস্তবায়ন করছে।
ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন শেষে আনুলিয়া ইউনিয়নের ভোলানাথপুর আশ্রয়ন ২-প্রকল্পের আওতায় উপকারভোগীদের মাঝে ব্যরাক হাউজের চাবি হস্তন্তর করা হয়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *