বাগেরহাট থেকে উদ্ধার করে আশাশুনির স্বামী ও শ্বশুরের জিম্মায় হস্তান্তর

আশাশুনি

বাগেরহাট জেলার সাথীকে ঢাকা থেকে উদ্ধারের পর আশাশুনিতে এনে স্বামী ও শ্বশুরের জিম্মায় হস্তান্তর করা হয়েছে। আশাশুনি থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হস্তান্তর করেন।

থানা সূত্রে জানাগেছে, বাগেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার গরীবপুর গ্রামের ভবতোষ গাইনের কন্যা সাথী গাইন (২৩) ঢাকায় পড়ালেখা করেন। তার সাথে তার সহপাঠি আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের আনোয়ার তৌহিদের পুত্র নূরে আলমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক বছর আগে সাথী গাইন ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে সাথী নাম নিয়ে নূরে আলমের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। সম্প্রতি তারা বিয়ের কথা প্রকাশ করে এবং স্বামীর সাথে থাকতে শুরু করেন। এব্যাপারে সাথীর পিতা ভবতোষ আশাশুনি থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম কবিরের নেতৃত্বে এসআই জাহাঙ্গীর অভিযান চালিয়ে বিশেষ পন্থায় ঢাকা থেকে সাথীকে উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার সকালে থানায় আনেন। মেয়ের পিতা-মাতা থানায় আসার পর সাথী বৈধ কাগজপত্র প্রদর্শন ও তিনি স্বামীর সাথে থাকতে চায় জানানোর পর তাকে পিতামাতর সামনে স্বামী ও শ্বশুরের জিম্মায় হস্তান্তর করা হয়। এসময় আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন উপস্থিত ছিলেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *