দেবহাটায় মারপিটের ঘটনায় আ’লীগ নেতৃবৃন্দের সংবাদ সম্মেলন

দেবহাটার পারুলিয়াতে মারপিটের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।রোববার সকাল ১০টায় দেবহাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে দলীয় নেতাকর্মীদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দেবহাটা উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সাহেব আলী।

এসময় তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে তিনি, পারুলিয়ার ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মুকুল ও ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শামীম হোসেনসহ কয়েকজন নেতাকর্মী প্রয়োজনীয় কাজ শেষে পারুলিয়া থেকে কুলিয়া অভিমুখে মৃধাপাড়ায় নিজেদের বাড়ীতে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে পারুলিয়া খাদ্য গুদামের সামনে পৌছালে একজন ভ্যানচালক ভুলবশত তাদের মোটর সাইকেলে ধাক্কা দেন। এসময় ওই ভ্যানচালকের সাথে তাদের বাক বিতন্ডতা হয়। একপর্যায়ে পারুলিয়া জলিল হ্যাচারী এলাকার মরহুম মোতালেব সরদারের ছেলে ইব্রাহিম হোসেন মিলন কোন কিছু শোনাবোঝা না করে অতর্কিত আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও কৃষকলীগের নেতাকর্মীদের চড় থাপ্পড় মারতে শুরু করে। এতে করে উভয়ের মধ্যে সামান্য হাতাহাতি ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের সাথে আলোচনা পরবর্তী দলীয় নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে দেবহাটা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অপরদিকে দুপক্ষের মধ্যকার সামান্য হাতাহাতি ও মারপিটের ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বেকায়দায় ফেলতে নাটকীয়ভাবে হাসপাতালে ভর্তিসহ থানায় পাল্টা অভিযোগ দায়ের করে মিথ্যা মামলা রুজু করানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে ইব্রাহিম হোসেন মিলন।

লিখিত বক্তব্যে সাহেব আলী আরো বলেন, যেসময় ইব্রাহিম হোসেন মিলনের সাথে তাদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে সেসময়ে তিনি লুঙ্গী ও গেঞ্জি পরা ছিলেন। অথচ ইব্রাহিম হোসেন মিলন তার দায়েরকৃত মিথ্যা অভিযোগে দাবী করেছেন যে, তাকে মারপিট করে তার কাছে থাকা নগদ তিন লক্ষ টাকা ও তার বোনের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীরা। যা সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্র মুলোক। কেননা বর্তমান সময়ে কেউ লুঙ্গি ও গেঞ্জি পরে কোমরে তিন লক্ষ টাকা নিয়ে ঘুরে বেড়ায়না। সম্পুর্ন দলীয় কোন্দলকে কেন্দ্র করে এক অংশের কুচক্রী মহলের ইব্রাহিম হোসেন মিলনকে পুঁজি করে দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। তাই ষড়যন্ত্র থেকে রেহাই পেতে ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শেখ ইয়াছিন আলী ও সর্বোপরি সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের কাছে দাবী জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনকালে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মুকুল, ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শামীম হোসেনসহ মুলদল ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Please follow and like us:
Tweet 20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)