শ্যামনগরে ভুয়া ৪ শিক্ষার্থী সহ দালাল আটক

ফিচার শ্যামনগর

শ্যামনগরে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনি-২০১৯ এর ৩য় পরীক্ষায় জালিয়াতি করে পরীক্ষা দেওয়ার সময় ৪ শিক্ষার্থী সহ এক দালাল উপজেলার বল্লভপুর গ্রামের ইউসুফ আলী গাজীর ছেলে হাবিবুল্লা গাজী (৫০) কে আটক করেছে শ্যামনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাহিদ হাসান খান। আজ ১৯ নভেম্বর সোমবার উপজেলার ভুরুলিয়া নাগবাটী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ঘটনাটি ঘটে। আটক দালালকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দুই বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। টাকা অনাদায়ে আরও ৬ মাস কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

শিশু শিক্ষার্থী ৪ জনকে তাদের স্ব-স্ব অভিভাবকের কাছে হস্তান্তও করা হয়েছে। আটক ৪ শিক্ষার্থী ভুয়া নামে খাদিজা খাতুন, নাছিমা খাতুন, মোঃ ফারুক হোসেন ও মোঃ সোহাগ হোসেন পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। তাদের প্রকৃত ঠিকানা হলঃ বুশরা আক্তার মিম, পিতা- হাবিবুল্লাহ, সুমাইয়া পারভীন, পিতা – সাগর রহমান তারা দুইজন বংশীপুর ৬৯নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্রী, আহম্মাদুল্লা, পিতা- জহুরুল ইসলাম সাতক্ষীরা তাবইবনে মালেক হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র ও আতিক হাসান, পিতা- আফছার, বংশীপুর মডেল একাডেমীর ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র, সর্ব সাং- বংশীপুর, উপজেলা- শ্যামনগর, জেলা- সাতক্ষীরা।

শিক্ষার্থীরা ব্রক্ষ্মশাসন এবতেদায়ী মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। শিক্ষার্থীরা জানান, মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাহতাবউদ্দীন তাদের পরীক্ষার জন্য প্রতিদিন ৫শত করে টাকা দেন। বুশরা আক্তার মিম। শ্যামনগর উপজেলার রিপোটার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন মিঠুর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্যামনগর সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাদেরকে আটক করেন। তিনি জানান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের নেতৃত্বে একটি তদন্ত টিম পুরো ঘটনার তদন্ত করে মাননীয় জেলা প্রশাসকের নিকট প্রতিবেদন দাখিল করবেন। সে আলোকে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হইবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *