৫৬% কোটা জাতির জন্য লজ্জার: জাবি ভিসি

0
69
ডি এস ডেস্ক:
সরকারি চাকরিতে ৫৬ শতাংশ কোটা পদ্ধতিকে জাতির জন্য লজ্জার মন্তব্য করে ‘কোটা সংস্কার’ এর দাবিতে চলমান আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম। তবে শিক্ষার্থীদের আলোচনার মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে তাদের দাবি তুলে ধরতে রাস্তা থেকে সরে আসারও আহ্বান জানান তিনি।

সোমবার (০৯ এপ্রিল) বিকেল ৩টার দিকে কোটা সংস্কারের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করার আহ্বান জানাতে গিয়ে তিনি এই একাত্মতা প্রকাশ করেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘৫৬ শতাংশ কোটা একটি জাতির জন্য লজ্জার। অবশ্যই এটি সংস্কার করা প্রয়োজন।’

এর আগে শিক্ষার্থীরা তিন ঘণ্টা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে দক্ষিন ও উত্তরাঞ্চাল থেকে ছেড়ে আসা ও ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া অসংখ্য পরিবহন আটকা পড়ে। তাই যান চলাচল স্বাভাবিক করতে পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, শাখা ছাত্রলীগ ও শিক্ষক সমিতি শিক্ষার্থীদেরকে রাস্তা থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করে নিতে বলে।

কিন্তু আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা অবরোধ চালিয়ে গেলে পুলিশ বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কাঁদানে গ্যাস, টিয়ারশেল, জলকামান ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরাও পুলিশকে লক্ষ করে ইট ফাটকেল ছুঁড়ে মারে। এভাবে প্রায় দুই ঘন্টা ব্যাপী চলা দফায় দফায় সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক সিকদার মো. জুলকারনাইন সহ প্রায় শাতিধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

তারপরও শিক্ষার্থীদেরকে রাস্তা থেকে সরানো যায়নি। পরে বিকেল ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম আন্দোলনকারীদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করতে ঘটনাস্থলে যান এবং শিক্ষার্থীদেরকে রাস্তা ছেড়ে দিতে বলেন। শিক্ষার্থীরা ভিসির আহ্বানে রাস্তা ছেড়ে দেয়। এ মুহূর্তে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।