হোয়াইট হাউজে অনুপ্রবেশকারীর ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে

0
58

অনলাইন ডেস্ক: হোয়াইট হাউজ চত্বর থেকে শুক্রবার রাতে এক অনুপ্রবেশকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পিঠে ব্যাগ নিয়ে ঐ অনুপ্রবেশকারী হোয়াইট হাউজ চত্বরে প্রবেশ করলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছে দেশটির সিক্রেট সার্ভিস। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এসময় ভবনেই ছিলেন। শনিবার ইউএস সিক্রেট সার্ভিস এক বিবৃতিতে জানায়, হোয়াইট হাউজের বাইরের ধাতব নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হয়ে এক ব্যক্তি ভেতরে প্রবেশ করলে দক্ষিণ চত্বর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সন্দেহভাজন ব্যক্তির নাম জোনাথন ট্রান। গ্রেফতার হওয়ার সময় ২৬ বছর বয়সী এই যুবকের পিঠে একটি ব্যাগ ছিল। তবে ওই ব্যাগে কোনও অস্ত্র বা সন্দেহজনক বস্তু ছিল না বলে সিক্রেট সার্ভিস জানিয়েছে। তাকে স্থানীয় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। জোনাথনকে শনিবার ফেডারেল আদালতে পেশ করা হয়। একজন ফেডারেল বিচারপতি তাকে জামিন ছাড়াই আটকে রাখার আদেশ দেন এবং সোমবার পরবর্তী শুনানির তারিখ নির্ধারণ করেন। মার্কিন অ্যাটর্নি দফতরের মুখপাত্র বিল মিলার জানান, জোনাথনের বিরুদ্ধে সংরক্ষিত এলাকায় অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। অনুপ্রবেশকারী ব্যক্তিকে গ্রেফতারের জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সিক্রেট সার্ভিসের প্রশংসা করেছেন। সিক্রেট সার্ভিস জানিয়েছে, গোয়েন্দারা হোয়াইট হাউসে তল্লাশি চালিয়েছে, তবে সেখানে সন্দেহজনক কিছু খুঁজে পাওয়া যায়নি। এর আগেও বিভিন্ন সময়ে হোয়াইট হাউসে অনুপ্রবেশের ঘটনা সামনে এসেছে। আর অনুপ্রবেশকারীদের গ্রেফতার করে স্থানীয় পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ২০১৪ সালে ওমর গনজালেস নামে ৪২ বছর বয়সী এক অনুপ্রবেশকারী ছুরিসহ হোয়াইট হাউসে ঢুকে পড়ে। হোয়াইট হাউসের দরজায় ঢুকে পড়ার পর ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে সিক্রেট সার্ভিস।

LEAVE A REPLY