হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেনা আ’লীগ : তথ্যমন্ত্রী

0
30
ডি এস ডেস্ক:
জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ১৪ দলীয় জোটকে এক টাকার সঙ্গে তুলনা করে আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন, আপনারা এক টাকার মালিক নন, আশি পয়সার মালিক।  এরশাদ, ইনু, দিলীপ বড়ুয়া ও মেননকে নিয়ে আওয়ামী লীগের এক টাকা হয়েছে।
তিনি বলেন, আমরা যদি না থাকি তবে আশি পয়সা নিয়ে রাস্তায় ফ্যা ফ্যা করে ঘুরতে হবে।  হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেন না।
বুধবার বিকালে কুষ্টিয়ার মিরপুর ফুটবল মাঠে জাসদের এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইনু এসব কথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমি কারও দয়ায় মন্ত্রী হইনি, শেখ হাসিনা আমায় বিশ্বাস করে মন্ত্রী বানিয়েছেন।  আমি সেই বিশ্বাসের মর্যাদা দিয়েছি।
তিনি বলেন, দেশ, গণতন্ত্র, মানুষ ও মুক্তিযুদ্ধের জন্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে ঐক্য করেছি।  আর সেই ঐক্যের ফসল হিসেবে শেখ হাসিনা এ দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন।  আমরা গর্বিত যে শেখ হাসিনা তার ওয়াদা রেখেছেন।
ইনু বলেন, শেখ হাসিনা রাজাকাদের বিচার করেছেন, জঙ্গিদের দমন করেছেন।  তাই তিনি বাংলাদেশের নেত্রী আর খালেদা জিয়া পাকিস্তানের।  শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের নেত্রী, খালেদা জিয়া রাজাকারের নেত্রী।
আওয়ামী লীগ নেতাদের নাম না উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা চুপ করে সব সহ্য করি বলে আমাদের দুর্বল ভাববেন না।  আমাদেরও শক্তি আছে, জাসদের লাঠি যেই রাস্তায় যাবে সেই রাস্তায় কোনো লোক থাকবে না।
জাসদ সভাপতি বলেন, আমি অন্য এমপিদের মতো জেলায় ডিসি-এসপি আমদানি করি না, কোনো তদবির করি না।  তাদের কাছে গিয়ে এক কাপ চা খাই না, বরং তাদের খাওয়াই।
তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া এখনও রাজাকার-যুদ্ধাপরাধীদের লালন-পালন ছাড়েননি।  তাই দেশের ভবিষ্যৎ স্বার্থে, গণতন্ত্রের স্বার্থে খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে বিদায় করতে হবে।
মিরপুর উপজেলা জাসদের সভাপতি মোহাম্মদ শরিফের সভাপতিত্বে ও জেলা জাসদের প্রচার সম্পাদক কারশেদ আলমের সঞ্চালনায় সমাবেশে জাসদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাতীয় নারী জোটের সভাপতি আফরোজা হন রিনা, কেন্দ্রীয় নেতা রকোনুজ্জামান রোকন, আব্দুল আলীম স্বপন, শরিফুল কবির স্বপন, মো. আবদুল্লাহ, গোলাম মহাসিন, আহম্মদ আলী প্রমুখ বক্তব্য দেন।
প্রসঙ্গত, গত ১ অক্টোবর এই মিরপুরে সমাবেশে জাসদ ও হাসানুল হক ইনুর তীব্র সমালোচনা করে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ নেতারা।  ওই জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।
তারা জাসদকে ‘ঢাল নেই তলোয়ার নেই, নিধিরাম সর্দার’ বলেও কটাক্ষ করে বক্তব্য দেন।  এর জবাব দিতে পাল্টা এ শোডাউনের আয়োজন করে জাসদ নেতারা।  এ জনসভায় ব্যাপক লোকসমাগম হয়।

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ