স্ত্রীকে মারধরের পর স্বামীর ‘আত্মহত্যা’

0
30

অনলাইন ডেস্ক:

রাজধানীর লালবাগে জনি খান (২৬) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, মারা যাওয়ার আগে সে তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এরপরই ঘরে গিয়ে তার মরদেহ দেখতে পায় প্রতিবেশিরা। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অচেতন অবস্থায় জনিকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জনির বাসা লালবাগের শহীদ নগর ২ নম্বর গলিতে।

লালবাগ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য জনির মরদেহ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। ঢামেকে জামাতার মরদেহ দেখতে এসে জনির শ্বশুর মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, ‘জনি বিয়ে বাড়ির ভিডিও এডিটিংয়ের কাজ করতো। গত কয়েক মাস আগে জনির সঙ্গে এক মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক হয়। তাকে বিয়ের করার জন্য গত এক-দেড় মাস ধরে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে আসছিল জনি। বিভিন্ন সময় সে স্ত্রীকে মারধর করতো। আজকে সকালে সে স্ত্রীকে মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়, পরে রুমের দরজা বন্ধ করে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।`

৬ বছর আগে সাফিয়ার সঙ্গে জনির বিয়ে হয়। তাদের চার বছরের এক মেয়ে আছে। নাম তার জুঁই বলে জানান ইউসুফ।

এস এম পলাশ

LEAVE A REPLY