সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনে ব্যাপক রদবদল

0
66
অনলাইন ডেস্ক:
তুমুল আলোচনার মধ্যে প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা দীর্ঘ ছুটি নিয়ে বিদেশ যাওয়ার পর সেই দায়িত্বে আসা বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞা সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনকে নতুনভাবে সাজাচ্ছেন। সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল সৈয়দ আমিনুল ইসলাম, প্রধান বিচারপতির একান্ত সচিব আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তী, হাই কোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার সৈয়দ দিলজার হোসেন, হাই কোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার মো. সাব্বির ফয়েজকে দায়িত্ব থেকে সরিয়েছেন তিনি।
রোববার আনা এই রদবদলে সুপ্রিম কোর্টে দায়িত্বপালনরত ১০ জনসহ বিচার বিভাগীয় মোট ২৫ জন কর্মকর্তার কর্মস্থল পরিবর্তন হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে কর্মরত সৈয়দ আমিনুলসহ ১০ কর্মকর্তাকে বদলি করলেও তাদের শূন্যপদে কাউকে নিয়োগের আদেশ রোববার হয়নি।  বিচারপতি সিনহার বক্তব্যকে বিভ্রান্তিমূলক আখ্যায়িত করে একদিন আগে যার স্বাক্ষরে সুপ্রিম কোর্টের বিজ্ঞপ্তি এসেছিল, সেই সৈয়দ আমিনুলকে নিম্নতম মজুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান করে পাঠানো হয়েছে।
প্রধান বিচারপতির একান্ত সচিবের দায়িত্ব পালন করে আসা আনিসুর রহমানকে পঞ্চগড়ে পাঠানো হয়েছে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ করে। আপিল বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তীকে সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ করে পাঠানো হয়েছে। হাই কোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার সৈয়দ দিলজার হোসেনকে ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়েছে বিশেষ জজ করে। হাই কোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার মো. সাব্বির ফয়েজকে লালমনিরহাটে পাঠানো হয়েছে অতিরিক্ত জেলা জজ করে।
হাই কোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার মো. যাবিদ হোসেনকে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক করে পাঠানো হয়েছে। হাই কোর্ট বিভাগের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. আজিজুল হককে ঠাকুরগাঁও, ফারজানা ইয়াসমিনকে পিরোজপুর এবং মোহাম্মদ কামাল হোসেন শিকদারকে চুয়াডাঙ্গার যুগ্ম-জেলা জজ হিসেবে বদলি করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার এ ই এম ইসমাইল হোসেনকে বরগুনার অতিরিক্ত জেলা জজ করা হয়েছে।
‘সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ ক্রমে’ বিচার বিভাগীয় এই কর্মকর্তাদের বদলির আদেশ রোববার আইন মন্ত্রণালয় থেকে আসে। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহ্হাব মিঞা এসব বদলির আদেশ অনুমোদন করার পরই আদেশ হয় বলে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধন বাতিলের রায় নিয়ে ক্ষমতাসীনদের সমালোচনার মুখে থাকা প্রধান বিচারপতি সিনহা ছুটি নেওয়ার পর আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠতম বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞাকে সেই দায়িত্ব দেন রাষ্ট্রপতি। দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় বিচারপতি সিনহার সঙ্গে এজলাসে বসতে অন্য বিচারপতিরা ‘অস্বীকৃতি’ জানানোয় তার পুনরায় প্রধান বিচারপতির পদে ফেরার সম্ভাবনা দেখছেন না অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
ছুটি নিয়ে শুক্রবার বিদেশ যাওয়ার আগে বিচারপতি সিনহা বিচার বিভাগে সরকারের হস্তক্ষেপের অভিযোগের সঙ্গে দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞার কাজের এখতিয়ার নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “প্রধান বিচারপতির প্রশাসনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি কিংবা সরকারের হস্তক্ষেপ করার কোনো রেওয়াজ নেই। তিনি শুধুমাত্র রুটিন মাফিক দৈনন্দিন কাজ করবেন।”
তবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলে আসছেন,  দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিয়া প্রধান বিচারপতির মতোই সব কাজ করতে পারবেন। তাদের বক্তব্যের পরপরেই সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনে ব্যাপক রদবদল হল।
এই রদবদলে সুপ্রিম কোর্ট থেকে যাদের অন্য কর্মস্থলে পাঠানো হয়েছে, সেখানে দায়িত্বরতদেরও বদলি করতে হয়েছে। নিম্নতম মজুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী হায়দারকে বরিশাল প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের সদস্য করা হয়েছে। তার স্থলে আসছেন সৈয়দ আমিনুল।
চুয়াডাঙ্গার যুগ্ম জেলা জজ মুহাম্মদ আব্দুর রহিমকে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ঠাকুরগাঁওয়ের যুগ্ম-জেলা জজ মো. হুমায়ুন কবির সরকারকে বগুড়ার যুগ্ম-জেলা জজ এবং পিরোজপুরের যুগ্ম-জেলা জজ মো. এনামূর হক বসুনিয়াকে কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট করা হয়েছে।
কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা জজ মো. খাদেম-উল কায়েসকে ঢাকার কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিল ট্রাইব্যুনালের সদস্য, লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা জজ মো. সাইদুর রহমান গাজীকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের আইন কর্মকর্তা এবং লালমনিরহাটের অতিরিক্ত জেলা জজ নজমুল হুদা তালুকদারকে লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা জজ করা হয়েছে।
পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা জজ মেহেদী হাসান তালুকদারকে লক্ষ্মীপুর, মাদারীপুরের অতিরিক্ত জেলা জজ নাজমুল হক শ্যামলকে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের আইন উপদেষ্টা, সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা জজ এম এ হামীদকে মাদারীপুরে বদলি করা হয়েছে।
বরগুনার অতিরিক্ত জেলা জজ মুহাং আবু তাহেরকে কিশোরগঞ্জ, মেহেরপুরের অতিরিক্ত জেলা জজ টি এম মুসাকে খুলনা, খুলনার অতিরিক্ত জেলা জজ মো. নুরুল ইসলামকে মেহেরপুর, বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা জজ মো. আল মামুনকে ঢাকা এবং ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. হাফিজুর রহমানকে বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা জজ হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ