সুন্দরবনের ‘নোয়া বাহিনীর’ ১২ জন সদস্যরা গোলাবারুদসহ আত্মসমর্পন

1
126

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: শনিবার বিকাল সাড়ে ৪ টায় সুন্দরবন এর আওতাভুক্ত চাঁদপাই রেঞ্জের অন্তর্গত পুটিয়া খালের কাছে কুখ্যাত জলদস্যু ‘নোয়া বাহিনীর’ প্রধান মোঃ বাকি বিল্লাহ ওরফে নোয়া মিয়া(৩৭) সহ ১২ জন সক্রিয় সদস্য বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ র‌্যাবের নিকট আত্মসমর্পন করেছে। ‘নোয়া বাহিনী’ সাম্প্রতিক সময়ে সুন্দরবনের অন্যতম সংগঠিত এবং সক্রিয় জলদস্যু বাহিনী। এই বাহিনী সকল অস্ত্র-গোলাবারুদসহ সদলবলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট আত্মসমর্পন এর ফলে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট সুন্দরবন ও তৎসংলগ্ন বঙ্গোপসাগরের উপকূলীয় অঞ্চলে নিরবিচ্ছিন্ন মৎস্য আহরণ সম্ভবপর হবে।

dsc01151

সূত্রে জানায়, তারা ৭টি বিদেশী একনালা বন্দুক, ৮টি বিদেশী দোনালা বন্দুক, ২টি .২২ বোর বিদেশী এয়ার রাইফেল, ৩টি ওয়ান শুটারগান, ১টি বিদেশী ৩ নট ৩ রাইফেল, ১টি .২২ বিদেশী রাইফেল এবং ৩টি বিদেশী কাটা রাইফেলসহ সর্বমোট ২৫টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং সর্বমোট ১১০৫ রাউন্ড বিভিন্ন প্রকার গোলাবারুদ র‌্যাব-৮ এর কাছে জমা দেয়। ‘নোয়া বাহিনীর’ জলদস্যু (১) মোঃ বাকি বিল্লাহ ওরফে নোয়া মিয়া(৩৭), পিতাঃ মোঃ ছাত্তার মোল্লা, গ্রাম- আমড়াতলা (২) মোঃ মনিরুল শেখ(৩৮), পিতাঃ মোঃ আলী আকবর শেখ, গ্রাম- দঃ হলদিবুনিয়া (৩) মোঃ মানজুর মোল্লা ওরফে রাঙ্গা(৪২), পিতাঃ মোঃ আব্দুল কাদের মৌলভী, গ্রাম- আমড়াতলা,  (৪) মোঃ মুক্ত শেখ (৩৭), পিতাঃ মৃতঃ আশরাফ শেখ, গ্রাম- দঃ হলদিবুনিয়া (৫) মোঃ তরিকুল শেখ(৬০), পিতাঃ মৃথঃ মজিদ শেখ, গ্রাম- হলদিবুনিয়া (৬) মোঃ আকবর শেখ(৪২), পিতাঃ আব্দুল মালেক শেখ, গ্রাম- বৈদ্যমারি (৭) মোঃ কিবরিয়া মোড়ল(৪০), পিতাঃ মৃতঃ আরমান হোসেন মোড়ল, গ্রাম- চাঁদপাই (৮) মোঃ জাহাঙ্গীর শেখ ওরফে মেজ ভাই(৪৮), পিতাঃ মোঃ আবু জাফর শেখ, গ্রাম- আমড়াতলা (৯) মোঃ আল আমিন শিকদার(৫০), পিতাঃ মোঃ আব্দুল মজিদ শিকদার, গ্রাম- চাঁদপাই (১০) মোঃ ইউনুচ শেখ ওরফে দুলাল ঠাকুর(৪০), পিতাঃ মৃতঃ আক্তার শেখ, গ্রাম- বকুলতলা (১১) মোঃ মিলাদুল মোল্লা ওরফে কালু ডাকাত(২৮), পিতাঃ মোঃ সালাম মোল্লা, গ্রাম- আমড়াতলা সর্ব থানাঃ মংলা, জেলাঃ বাগেরহাট (১২) মোঃ মোশারফ হোসেন(৩৭), পিতাঃ মোঃ আকরাম শেখ, গ্রাম- চারাখালী, থানাঃ রামপাল, জেলাঃ বাগেরহাট বলে পরিচয় দেয়। তারা আভিযানিক দলের কাছে, তাদের ব্যবহৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদ হস্তান্তর করে।

1 COMMENT