সারাদিন ব্যস্ত থাকার পরও নিজেকে ফিট রাখবেন যেভাবে

0
217

অনলাইন ডেস্ক :

মিটিং, ডেডলাইন, ই-মেল, ট্যুর ইত্যাদি নিয়ে সবসময় ব্যস্ত৷ কিন্তু এত কাজ করার জন্য ফিট তো থাকতেই হবে৷ ফিটনেস টিপস জেনে নিন

১) সবসময় পানি সঙ্গে রাখুন৷ অনেকসময় বাইরের পানি খেলে শরীর খারাপ করতে পারে৷ তাছাড়া বার বার পানি খাওয়ার অভ্যাস খুবই ভালো৷ ফিট থাকার জন্য দেহের সঠিক হাইড্রেশন হওয়া খুব জরুরি৷ এতে শরীর মন দুইই ভালো থাকে৷ তাই বেশি করে পানি খান৷

২) এবার একটা ক্রক পট কিনে নিন৷ এটা স্লো কুকার৷ খুব ধীরে ধীরে এতে রান্না হয়৷ সকালে বেরোনোর আগে মাংস ও প্রয়োজনীয় মশলাপাতি দিয়ে লো মোডে সেট করে দিন৷ রাতে ফিরে দেখবেন খাবার তৈরি৷ এতে রান্না করার জন্য খাটতেও হবে না আর সময়ও বাচবে৷ ইন্টারনেটে অনেকরকম ক্রক পট রেসিপি রয়েছে৷ ট্রাই করে দেখতে পারেন৷

৩) রাতের রান্না করার সময় একটু বেশি করে রেঁধে নিন৷ তাহলে অতিরিক্ত রান্নায় পরের দিন হয়ে যাবে৷ এতে অনেক সময় বাঁচে৷ তাছাড়া এত দাম দিয়ে যখন ফ্রিজ কিনলেনই ব্যবহার করতে হবে তো! তবে বাসি খাবার খাওয়া কিন্তু স্বাস্থ্যসম্মত নয় একেবারেই৷

৪) সারাদিনের ডায়েট আগে থেকে ছকে নিন৷ এতে অস্বাস্থ্যকর খাবারদাবার খাওয়ার সুযোগ থাকবে না৷ প্ল্যান করে খাওয়াদাওয়া করার জন্য আগে থেকে লিস্ট করে নিন৷ মনে রাখার জন্য নিজের ফোনে রিমাইন্ডার সেট করেও রাখতে পারেন৷ ডায়েট মেনে চলতে সুবিধা হবে৷

৫) খিদে কিন্তু যে কোনও মুহূর্তে পেতে পারে৷ তা বলে রাস্তা থেকে যা পারলাম কিনে খেলাম, এমনটা ভুলেও করবেন না৷ রাস্তার খাবার খেলে শরীর খারাপ করতে পারে৷ তাছাড়া জাঙ্কফুডে মেদ বাড়ার আশঙ্কাও প্রবল৷ তাই ব্যাগে কিছু স্বাস্থ্যকর স্ন্যাক্স রাখুন৷ প্রোটিন বার, ডায়জেস্টিভ বিস্কিট কিংবা বাদাম ভালো অপশন৷ পেটও ভরল আর স্বাস্থ্যেরও ক্ষতি হল না৷

৬) ঘুম থেকে একটু তাড়াতাড়ি উঠুন৷ রোজ সকালে ঘন্টাখানেক ব্যায়াম করুন৷ সাইক্লিং কিংবা জগিং ভালো অপশন৷ সুইমিং-এর শখ থাকলে সেটাও ভালো৷ দিনের শেষে আধ ঘণ্টা ধ্যান করুন৷

৭) তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যান৷ ঘুমনোর একঘণ্টা আগে ফোন সুইচ অফ করে ফেলুন৷ নিজের ঘরের লাইট ডিম করে হালকা গান শুনতে পারেন৷ কিংবা বই পড়তে পড়তে ঘুমিয়ে পড়ুন৷ পরের দিন আবার দৌড়ানো শুরু করতে হবে তো!