সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ মহাসড়কটি যেন খানা-খন্দ

148
8035

বিশেষ প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ মহাসড়কটি জারাজীর্ন, বেহাল দশা, খানা খোন্দকের আকরে দিনে দিনে বড় হচ্ছে। বাড়ছে জন-সাধারনের ভোগান্তির আর বিরক্ত, বিড়ম্বনা। জরাজীর্নত জন বগুল এ মহাসড়কটির দুরর্ববস্থাকে সঙ্গী করে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। অথচ সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাশীনতা ও সড়ক ও জনপথ বিভাগ বহাল তবিয়তে তাদের দায়িত্ব হীনতার বিষয়টি জানান দিয়ে চলেছে।
সাতক্ষীরার প্রানকেন্দ্রের এ মহাসড়কটি ক্ষত আর ক্ষত বাসটার্মিনালের আশপাশের এলাকা, কদমতলা বাজার রোড, খুলনা রোড, আলিপুর বাজার থেকে হাদিপুর ক্লাব মোড় যেন বলে দিচ্ছে এই মহাসড়ক কেবল যান চলাচলের অনুপোযুক্ত,জন দূর্ভোগ আর জন ভোগান্তির চরম বাস্তবতা। মহাসড়কের খানা খোন্দকে আর ক্ষতের সৃষ্টি বর্তমান যা কেবল যাত্রী বাহি যান বাহন গুলো বেহাল দশায় পড়ছে তানয়, দুই চাকার মোটর সাইকেল ও খানা খোন্দক কে স্পর্শ করছে। সাতক্ষীরা শহর এলাকার বাইরের চিত্র ও ভয়া বহ, মেডিকেল কলেজ এলাকার সড়কটির কিছু অংশ যানবাহন চলাচলের উপযোগী হলে ও এর পরের চিত্র ভিন্নরুপ। যেমন আলিপুর, পুষ্পকাটি কুলিয়া এলাকার চিত্র কো অবস্থাতেই যান চলাচলের উপযোগী নয়। তার বহেরার বাজার এলাকায় বড় বড় গর্ত সড়কটির গতিপথ পর্যন্ত পরিবর্তন করেছে। কুলিয়া হতে পারুলিযা ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার মহাসড়কের খানা খোন্দকের শেষ নেই। পারুলিয়া ব্রীজ হতে পরবর্তি সখিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সখিপুর মোড়, চাঁদপুর,গাজীর হাট, হাদীপুর হাটখোলা ইদগা, ক্লাব মোড়,নলতা, চালতে বাড়িয়া ভাড়াশিমলা এলাকার মহাসড়কের জরাজীর্নতার শেষ নেই।
দেশের অন্যতম সম্ভাবনাময় জেলা হিসেবে সাতক্ষীরা বিশেষ ভাবে পরিচিত। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পাশাপাশি অভ্যন্তরীন রাজস্ব উপার্জনের ক্ষেত্রে সাতক্ষীরা নিজকে বিশেষ ভাবে আলোচিত করেছে। সাতক্ষীরার সড়ক ব্যবস্থার উদাসীনতা, যার কারনে আজ চলাচলের অনুপযুক্ততা চরম পর্যায়ে। জেলার উনিশ লক্ষাধিক মানুষের  যাতায়াত এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার এক মাত্র মাধ্যম এ মহাসড়কটি। যা সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ জেলা বাসি কে অপরাপর জেলা সহ রাজধানীর সাথে যোগাযোগের সেতু বন্ধন সৃষ্টি করেছে। সেই মহাসড়কটির বেহাল দশা গোটা জেলা বাসিকে ফেলেছে চরমভাবে বিরক্ত বিড়ম্বনা আর দৃর্ভোগে।
সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ নেই অথচ সড়ক বিভাগের অস্তিত্ব  বিদ্যামান। যতই দিন যাচেছ  ততোই সাতক্ষীরা – কালিগঞ্জ মহাসড়কের  দুরবস্থার ক্ষেএের পরিমান বড় হচেছ। মহাসড়কটি ভগ্ন দশার জন্য কেবল যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার ছন্দ পতন ঘটেছে তা নয়। নেমে এসেছে ব্যবসা  বানিজ্য অস্থিরতা। অর্থনীতিতে সৃষ্টি হয়েছে বিরূপ পতিক্্িরয়া। সাতক্ষীরা বাস্তব তার  মহাসড়কটির ভগ্ন দশায় হেতু পন্য পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির কারনে দুরবর্তী জেলা হতে আনা সবজি সহ অন্যান পন্য সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধির ঘটনা ঘটছে। মহাসড়কটি দুব্যবস্থার কারনে পন্যবাহী ট্রাকসহ যানবাহন গুলোকে ব্যবসায়ীদের অতিরিক্ত অর্থগুনতে হচেছ। সাতক্ষীরা -কালিগঞ্জ মহাসড়কের ক্ষত- বিক্ষত চরিএ নয়, যান বহন এ মহাসড়কটি দ্রুত সৎস্কার সময়ের দাবী। যত দিন যাচেছ ততোই মহাসড়কটির ক্ষত-বিক্ষত বৃদ্ধি পাচেছ। সড়ক ও যানপথ বিভাগের দায়িত্বশীলদের দায়িত্বহীনতার কারনে হাজার হাজার জন সাধারন ভোগান্তিতে পড়বে এবং অর্থনীতিতে বিরুপ প্রভাব পড়বে তা মোটেও সমাচিন নয়। তাই এ ব্যাপারে এলাকার জন সাধারনের দাবী এক মাএ মহাসড়কটি সংস্কারের।

রফিকুল ইসলাম/একে/আই।

148 COMMENTS

  1. Hey there! I just wanted to ask if you ever have any issues
    with hackers? My last blog (wordpress) was hacked and
    I ended up losing a few months of hard work due to no
    data backup. Do you have any solutions to stop hackers?

  2. You have made some really good points there. I looked on the net for more info about the issue and found most individuals will go along with your views on this site.

  3. You could definitely see your expertise in the paintings you write. The arena hopes for more passionate writers such as you who are not afraid to say how they believe. All the time follow your heart.

  4. I think other website proprietors should take this web site as an model, very clean and fantastic user friendly style and design, as well as the content. You are an expert in this topic!

LEAVE A REPLY