সাতক্ষীরায় শ্রমিককে আটকের প্রতিবাদে ভোমরা স্থল বন্দর শ্রমিকদের কর্মবিরতি!

139
9144

বিশেষ প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা ভোমরা শ্রমিক ইউনিয়নের এক শ্রমিককে আটক করার প্রতিবাদে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ভোমরা স্থল বন্দরে শ্রমিকদের অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য কর্ম বিরতি শুরু হয়েছে।  মঙ্গলবার দুপুর দেড়টা হতে শ্রমিকরা কর্মবিরতি শুরু করেছে।

বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা জানান, মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে সদর থানার এ এস আই সাইমন ঢালী সদরের লক্ষীদাড়ি গ্রামের রহমান গাজীর ছেলে হামিদ গাজীকে কোন কারণ ছাড়াই আটক করে। এরপর টাকা চায়। সে গরীব মানুষ টাকা পাবে কোথায়? এখন শুনছি তাকে চালান করে দেওয়ার পায়তারা করছে পুলিশ।  সে আমাদের সহকর্মী। তাকে ছেড়ে না দেওয়া পর্যন্ত আমরা বাড়িতে যাবোনা। আমরা কোন কাজও করবো না।

ভোমরা  হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আনারুল ইসলাম বলেন, সারাদিন কাজ করে হামিদ গাজী বাড়িতে যায়।  রাতে দারগা সাইমন ঢালী হামিদ গাজীর বাড়িতে যেয়ে তাকে আটক করে। আমি ঘটনা শুনে দারগার সাথে কথা বলি। তখন দারগা সাইমন ছেড়ে দেওয়ার শর্তে ১ লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা না দেওয়ায় তাকে ১০ বতল ফেন্সিডিল দিয়ে চালান করে দেয়।

02
ভোমরা সি এন্ড এফে’র সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, আজ দুপুর ১২ টার দিকে শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা এসে আমাকে বললো বিনা কারণে আমাদেও এক শ্রমিককে পুলিশ আটক করেছে। পরে পুলিশ তার কাছে টাকা চেয়েছে। এখন শ্রমিক নিজেদেরকে নিরাপদ মনে করছে না বলে তারা কাজ করছে না। আজ বেলা দেড়টা হতে তারা কাছ বন্ধ করে দিয়েছে। প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টদেও সমন্ময়ে আমরা সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করছি। আশা করছি দ্রুতই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মারুফ আহম্মেদ সি এন্ড এফ ও শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, হাতের ৫টা আঙুলতো সমান না। পুলিশ ইনফরমেশন পেয়েছে তাকে আটক করেছে। ভুলভ্রান্তি হতে পারে।  তবে ভবিষৎ এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবেনা। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা হবেই। মামলা দেওয়ার আগে শ্রমিকনেতাদের কেউ আমাকে তার সম্পর্কে বলেনি। তাহলে আমি কিভাবে বুঝবো সে নিরপরাধ? এ ছাড়া তিনি শ্রমিক নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আগামীতে প্রত্যেক শ্রমিককে আইডি কার্ড সঙ্গে রাখতে হবে। তাহলে এ রকম সমস্যা আর হবে না।

এ সময়  শ্রমিক নেতারা বলেন, আগামী কালের মধ্যে যদি শান্তিপূর্ণ সমাধান না হয় তাহলে শনিবার হতে ভোমরা বন্দরে লাগাতার কর্ম বিরতি চলবে।

139 COMMENTS