সাতক্ষীরায় বিনা ধান-১৬ এর মাঠ দিবস

0
289

আব্দুর রহমান :
বিনা উপকেন্দ্র, বিনেরপোতা ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সাতক্ষীরার আয়োজনে ও জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাষ্ট ফান্ড (সিসিটিএফ)’র অর্থায়নে বিনা ধান-১৬ এর প্লট প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে সদর উপজেলার নেবাখালী জগন্নাথপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাতক্ষীরার উপ পরিচালক কাজী আব্দুল মান্নান।
এসময় তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাষ্ট ফান্ডের অর্থায়নে বিনাধান-১৬ কৃষকদের দৌড় গোড়ায় পৌছে দিয়েছে। কৃষকরাই দেশ গড়ার প্রকৃত সৈনিক। কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। বর্তমান সরকার কৃষকদের কল্যানে নানমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) এর বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা কৃষকের মুখে হাঁসি ফুটানোর জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এ লক্ষে বিনাধান -১৬ উৎপাদন করছে। এ ধানের ফলন এ জেলার ভাল হয়েছে। এটি বছরে বছরে ৩-৪টি ফসল উৎপাদন করা যায়। এর জীবন বৈশিষ্ট্য ও ফলন খুবই ভালো। এবছর বিঘা প্রতি কৃষকরা ১৮-২০ মণ ধান পেয়েছেন। কৃষকরা এ জাতের বীজ চাইলে বিনা কতৃপক্ষ বীজ সরবরাহ করবেন বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।’
বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা বিনা উপকেন্দ্র সাতক্ষীরার বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল আরাফাত তপুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ জি.এম.এ গফুর, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মনিরা পারভীন, সহকারী বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আলমগীর কবির, সহকারী বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কাজী এনায়েত হোসেন, কৃষক শেখ শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। মাঠ দিবসে শতাধিক কৃষক-কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সহকারী বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আলমগীর কবির।