সাতক্ষীরায় বাড়িতে জুয়ার আসর বসানোর প্রতিবাদ করায় এক তরুণলীগ নেতাকে খুন জখমের হুমকি

0
635
সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরায় বাড়িতে জুয়ার আসর বসানোর প্রতিবাদ করায় শেখ তহিদুজ্জামান চপল জেলা তরুণলীগের এক নেতাকে খুন জখমের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই প্রতিবাদ জানান সাতক্ষীরা জেলা তরুণলীগের যুগ্ম আহবায়ক সুলতানপুর (সাহাপাড়া) এলাকার চিত্ত রঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে বিদ্যুৎ বিশ্বাস।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৯১-৯২ সালের দিকে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে রাজনৈতিক অঙ্গনে তার পদচারণা। পরবর্তীতে যুবলীগে এবং বর্তমান সাতক্ষীরা জেলা তরুণ লীগের যুগ্ম আহবায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। তরুণলীগে যোগদানের পর থেকে সুলতানপুর এলাকার মৃত শেখ রফিকুজ্জামানের ছেলে শেখ তহিদুজ্জামান চপল বিভিন্ন স্থানে আমার সম্পর্কে অশীল মন্তব্য ও কুৎসা রটাতে থাকে। বিষয়টি জানতে পেরে গত ১০ জানুয়ারী সন্ধ্যায় মোবাইলে আমার সর্ম্পকে বিরুপ মন্তব্যের কারন জিজ্ঞাসা করলে চপল আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং রাস্তা-ঘাটে একা পেলে তার লোকজন দিয়ে আমাকে মারপিট, খুন জখমসহ জান মালের ক্ষয়ক্ষতি করার হুমকি দেয়। এছাড়াও মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে আমাকে জেল হাজতে পাঠানোরও হুমকি দেয় সে। এঘটনার পর ১২ জানুয়ারী আমি সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কমিটি মোমিনউলাহ মোহনকে আহবায়ক ও মাছুম বিলাহ এবং আমাকে (বিদ্যুৎ বিশ্বাস) যুগ্ম আহবায়ক করে সাতক্ষীরা জেলা তরুণলীগের কমিটি ঘোষণার পর উক্ত চপলের গাত্রদাহ শুরু হয়। তিনি সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সম্মেলন করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার কোন সত্যতা নেই। এছাড়া জি এম শফিউলাহ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন ও বর্তমানে আছেন। চপল কর্তৃক তাদের কমিটি বহাল আছে মর্মে সংবাদ সম্মেলনে দেয়া তথ্যটি মিথ্যে। আমিসহ জেলা তরুণলীগের সকল নেতৃবৃন্দ চপলের দেয়া তথ্য ও বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
তিনি আরো বলেন, চপলের সাথে আমার কোন বিষয়ে কোন বিরোধ নেই। তিনি দীর্ঘদিন ধরে তার বাড়িতে জোয়ার আসর চালিয়ে আসছেন। এ বিষয়ে আমি প্রতিবাদ করায় তিনি আমার উপর ক্ষুদ্ধ হন। যার প্রেক্ষিতে তিনি আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিন্ন করতে আমার সম্পর্কে বিরুপ মন্তব্য ও কুৎসা রটনা শুরু করেন। চপল যে কোন সময় আমাকে খুন জখমসহ আমার বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে। যে কারণে আমি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তিনি চপলের হাত থেকে রক্ষা এবং নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা  করেন।