সাতক্ষীরায় বাশদহায় ইজারা গ্রহীতাদের হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

0
306

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাশদহা বাওড় (বদ্ধ) চিংড়ি মহলের ইজারা গ্রহীতাদের নানাভাবে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ওই চিংড়ি মহলের ইজারা গ্রহীতারা এই অভিযোগ করে প্রশাসনের কাছে প্রতিকার দাবি করেছেন।  এ সময় তিনজন ইজারা গ্রহীতার পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জিল্লুর রহমান। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সরকার ঘোষিত সদর উপজেলার বাশদহা বাওড় চিংড়ি মহলটি বদ্ধ এবং লম্বাকৃতির। যার আয়তন ৩৭.৮৯ একর। উক্ত চিংড়ি মহলটি ব্যবস্থাপনা নীতিমালা অনুসারে সকল নিয়ম-কানুন অনুসরণ করে ভূমি মন্ত্রণালয় হতে জিল্লুর রহমানের অনুকূলে ১০ একর, নূর-ই-আলম সিদ্দিকের অনুকূলে ১৪ একর, মীর মাঈন উদ্দিনের অনুকূলে ১৩.৮৯ একর জমি গলদা চিংড়ি ও কার্প জাতীয় মাছ চাষের জন্য ইজারা দেয়া হয়। সেই মোতাবেক নীতিমালা অনুসরণ করে উল্লিখিতরা গলদা চিংড়ি ও কার্প জাতীয় মাছ চাষ করছেন। কিন্তু চিংড়ি মহলটি ইজারা না পেয়ে প্রতিহিংসামূলকভাবে বাশদহা, কাজীপাড়া, ভবানীপুর, কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামের আজিজুল হক, মো. আব্দুল্লাহ, রফিকুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন, মশিয়ার মন্টু, বোকারী মান্নান, মতিয়ারসহ অনেকেই বিভিন্ন দপ্তরে ইজারা গ্রহীতাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ করে হয়রানি করছে। এরই অংশ হিসেবে তারা গত ১ ডিসেম্বর সাংবাদিক সম্মেলন করে জাল-জাতিয়াতির মাধ্যমে চিংড়ি মহল ঘোষণার মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য সরবরাহ করেছে। সংবাদ সম্মেলনে হয়রানি থেকে মুক্তি পেতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ইজারা গ্রহীতা নূর-ই-আলম সিদ্দিক ও মীর মাঈন উদ্দীন তারেক।