সাতক্ষীরায় দুই লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে সন্ত্রাসীরা এক ঘের ব্যবসায়ীর ছেলেকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে

0
107

শহর প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরায় দুই লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে সন্ত্রাসীরা এক ঘের ব্যবসায়ীর ছেলেকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন জেলার আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের মনিপুর গ্রামের শহর আলী ফকিরের ছেলে ঘের মালিক শুকুর আলী ফকির।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শুকুর আলী বলেন, মনিপুর এলাকায় তার ৫০ বিঘার একটি মাছের ঘের রয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি উপজেলার গদাইপুর গ্রামের মৃত মোজাহার সরদার ওরফে রাজাকারের ছেলে শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর কু-নজর পড়ে তার ওই ঘেরের উপর। তারা ওই এলাকায় ঘের ব্যবসা করার জন্য তার কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা না দেয়ায় তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকে। এর সূত্র ধরে শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্য চেউটিয়া গ্রামের আব্দুল লতিফ সরদারের ছেলে কবির সরদার, সুলতান আহম্মেদের ছেলে আনিস, পিরোজপুর গ্রামের ওমর আলীর ছেলে রিপন, মৃত গহর আলীর ছেলে সাইফুল, অঅসাদুলের ছেলে লিটন, দর্গাপুর গ্রামের মৃত করিম বক্সের ছেলে কামরুল গাজী ও অনারুল গাজী, মৃত আছির সরদারে ছেলে লাভলু, গোয়ালডাঙ্গা গ্রামের নকুল এর ছেলে সুব্রত, লাউতাড়া গ্রামের মাওলা বক্সের ছেলে ইব্রাহিম এবং খুলনার সোনাডাঙ্গা থানার গোবরচাকা মেইন রোড এলাকার আবুল বাসার চিশতি ওরফে চুন্ন ডাকাত গত ১১ অক্টোবর ঘেরে অবস্থান করাকালিন সময়য়ে আমার ছেলে রাসেলকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা তার কাছে থাকা চল্লিশ হাজার টাকা মূল্যের একটি স্বর্ণের চেইন, ১০ হাজার টাকা মূল্যের একটি স্বর্ণের অংটি, ১৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইল সেট ও নগদ ৩০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। আগামী ৭ দিনের মধ্যে চাঁদার বাকি টাকা পৌছে দেয়ার শর্তে শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা মাঝ পথে আমার ছেলে রাসেলকে ছেড়ে দিয়ে যায়। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে চাঁদার টাকা পৌছে না দিলে ওই এলাকায় আর ঘের করতে পারবি না ও আগামীতে ছেলেকে হারাতে হবে বলে হুমকি দেয় সন্ত্রাসীরা।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, শাহনেওয়াজ ডালিমের বাবা মৃত মোজাহার সরদার এলাকার চিহিৃত একজন  রাজাকার ছিলেন। তার নেতৃত্বে ৭১ সালে অন্যের ধন সম্পদ লুটপাট করা হয়। যে কারনে ২০০৯ সালে মোজাহার সরদারের বিরুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধে মামলা হয়। তার ছেলে ডালিম এখন আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ করে বাবার মত সাধারণ মানুষের ধন সম্পত্তি লুটপাট, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন মানবতাবিরোধী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। ডালিমের এসব অবৈধ কর্মকান্ডে এলাকার সাধারন মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। তার ভয়ে ইতিমধ্যে অনেকে বাড়ি ঘর ছেড়ে অনত্রে আশ্রয় নিয়েছে। এসব কারনে তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তিনি কুখ্যাত রাজাকার পুত্র শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এনএইচ