সাতক্ষীরায় চোরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ শহরবাসী॥ কোন না কোন এলাকায় চুরি

1
281

স্টাফ রিপোর্টার:
সাতক্ষীরায় হঠাৎ করে চোরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ হয়েছে এলাকাবাসী। প্রতিদিন কোন না কোন এলাকায় চুরি হচ্ছে। এক শ্রেণির উঠতি বয়সী নেশাগ্রস্থ যুবকরা এ সব কাজ করছে বলে এলাকাবাসী জানান। গরম বৃদ্ধি হওয়ার বাড়ির মালিকরা জানালা খুলে ঘুমালে মোবাইল ও গুরুত্বপূর্ণ জিনিস নিয়ে চম্পট দিচ্ছে। তাছাড়া রাতে বাহিরে কোন প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র রাখলে সকালে উঠে তা আর পাওয়া যাচ্ছে না।
কাটিয়া এলাকার বাসিন্দা ফজলুর রহমান জানান, প্রায় প্রত্যেক দিন সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ রোড এলাকায় চুরি হচ্ছে। এখানে কিছু নেশাগ্রস্থ যুবক রাতে চারিদিকে ঘুরে বেড়ায়। তারা কোন বাড়ির জানালা খোলা বা বাহিরে কোন জিনিস থাকলে তা তার চুরি করে নিয়ে যায়। তাছাড়া এই এলাকায় হোস্টেল ও বাসা বাড়ি বেশি হওয়ায় প্রতিদিন চুরি হচ্ছে। বিশেষ করে চোরেরা হোষ্টেলে বেশি চুরি করছে। চোরেরা ফলো করে  কোন শিক্ষার্থী কখন বাহিরে যাচ্ছে তখন তারা জানালা দরজা ভেঙ্গে সব কিছু চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। গত এক মাসের ব্যবধানে কাটিয়ায় ভাই ভাই ছাত্রবাসে চারটি মোবাইল ফোন সেট জানাল ভেঙ্গে চুরি করে যায়। নাম না প্রকাশ করার শর্তে স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান , চোরদের দুইহোতা এদের বাড়ি শহরের  করিম মেস এলাকায়। এদের ১০ থেকে ১২ জনের একটি গ্রুপ রয়েছে। এরা এলাকায় এমন কোন অপকর্ম নেই তারা করে না। গ্রাম অঞ্চল থেকে আসা নিরীহ শিক্ষার্থীদের মারপিট ও ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরকরে মোবাইল ও টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এদের ভয়ে এলাকায় কেউ মুখ খুলতে চাই না। এলাকাবাসী চোরদের উপদ্রব থেকে পরিত্রান পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা জানান, দুটি ছেলের কারণে একটি এলাকার মানুষ অতিষ্ট হবে এটা মেনে নেওয়া যাবে না। এদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

1 COMMENT