সাতক্ষীরায় একজন প্রাইভেট শিক্ষককের সংবাদ সম্মেলন

37
2265

 শহর প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরায় একজন নিরীহ প্রাইভেট শিক্ষককে জিম্মি করে একটি স্বার্থন্বেষী মহল অবৈধভাবে ফায়দা লোটার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার সুবর্নাবাদ গ্রামের মৃত গুরুচরণ মন্ডলের ছেলে ভোলানাথ মন্ডল। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ছেলেমেয়ে টিউশনি করে তিনি জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। এখনও তার কাছে ২০জন ছেলেমেয়ে প্রাইভেট পড়ে। শিক্ষার্থীরা ভাল ফলাফল করায় তার প্রাইভেট ছাত্র-ছাত্রী একটু বেশি হয়। তার বড় ছেলে ঢাকা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে। টিউশনি করে কোন রকমে খুব কষ্টে সংসার চালানোর পরেও ছেলের লেখাপড়ার খরচ বহন করে আসছেন তিনি। এটা অনেকের সহ্য হচ্ছে না। পরিকল্পিতভাবে তাকে হেনস্তা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে কতিপয় স্বার্থন্বেষী এক কুচক্রী  মহল। টিউশনির টাকা নিয়ে সুবর্নবাদ গ্রামের ভোলা বর্মন এর মেয়ের সাথে এক বছর আগে তার একটু ঝামেলা হয়। এ ঘটনা পুজি করে মেয়েটির মা আমার কাছে উল্টে ৪ হাজার টাকা দাবি করে। পরে উভয়ের পরিবারের মুরুব্বিরা বসে বিষয়টি নিষ্পত্তি করে দেন। কিন্তু গ্রামের কিছু সুযোগ সন্ধানী লোক মেয়েটি ও তার মাকে বিভিন্ন রকম প্রলোভন দেখিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন তথ্য সাংবাদিকদের কাছে উপস্থাপন করে। এতদিন পরে এসে পরিকল্পিতভাবে এই অপবাদ যা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। ভোলানাথ মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, সবুজ নামের একজন সাংবাদিক আমার বাড়িতে এসে আমার ছবি ও নাম ঠিকানা  নিয়ে যায়। পরে সে অমার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা  না দেয়ায় গত ২৩ মে স্থানীয় দৈনিক পত্রিকায় অকথ্য ও নোংরা ভাষায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করে। ওই দিন সে আবার আমার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করে। দাবীকৃত টাকা না পেলে তারা আবারো পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করবে বলে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। আমাকে জিম্মি করে ফায়দা লোটার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে ওই কতিথ সাংবাদিক। তারা পরিকল্পিত ভাবে আমার সুনাম নষ্ট করার পায়তারা চালাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, ভোলা বর্মন এর ৩ মেয়ে ১ বছর আগে আমার কাছে পড়তো। তারা দীর্ঘদিন আমার কাছে পড়ে না। এতদিন পরে এসে পরিকল্পিতভাবে এই অপবাদ দিচ্ছে, যা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এছাড়া সুবর্নবাদ গ্রামের বিধান বর্মন এর মেয়ে আমার কাছে কখনও পড়েনি বা আসেনি। তিনি মিথ্যে অপবাদ থেকে পরিত্রাণ পেতে এবং ষড়যন্ত্রকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির প্রদানের জন্য প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তার কাছে দাবী জানিয়েছেন। সাংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভোলানাথ মন্ডলের স্ত্রী লক্ষ্মী মন্ডল ও  ছোট ছেলে স্নেহাশীষ।

37 COMMENTS