সাতক্ষীরার সমস্যার তালিকায় অন্যতম মাদক

0
318

বরুণ ব্যানার্জী :

সমস্যার তালিকায় মাদক সমস্যা সাতক্ষীরায় অন্যতম। সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় বিভিন্নভাবে এর বিস্তার দিন দিন বাড়ছে। এর শিকার হচ্ছে তরুণসমাজ। আর মাদক ব্যবসায়ীর তালিকায় পুরুষের পাশাপাশি সক্রিয় নারীরাও। সাতক্ষীরার ২৩৮ কিলোমিটার  সীমান্ত এলাকা। এর মধ্যে নদী পথ ১৩৮ কিলোমিটার ও সড়ক পখ ১০০ কিলোমিটার। এর মধ্যে কমপক্ষে ২৮টি পয়েন্টে চলে মাদক বিকিকিনি। মাদকসেবীর মধ্যে রয়েছে যুব সমাজ, রিকশা চালক, শ্রমিক, ছাত্রসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। এমন কোনো শ্রেণি পেশার মানুষ বিরল, যে পেশার কেউ না কেউ মাদকাসক্ত নয়। আত্মবিধ্বংসী নেশার রাহুগ্রাসে এই প্রাণশক্তি আজ প্রাণহীন হুমকিতে পরিণত হচ্ছে। নেশাগ্রস্ত যুবকরা হারিয়ে ফেলেছে কর্মস্পৃহা, দায়িত্বশীলতা, মূল্যবোধ, ব্যক্তিত্ব ও সচেতনতা। নেশাগ্রস্ত ব্যক্তিদের বেশিরভাগই অন্তিম পরিণতি হচ্ছে মারদাঙ্গা, চুরি, রাহজানি ও অপহরণ ইত্যাদি অসামাজিক কাজকর্মে জড়িয়ে পড়া। যার ফলে সমাজজীবনে স্থিতিশীলতা, স্বাভাবিকতা, শৃঙ্খলা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। শুধু আইন দিয়ে মাদক সৃষ্ট সমস্যা সমাধান সম্ভব নয়। সেই সঙ্গে এ সমস্যা রোধে এর বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রচারণা, মাদকের সহজলভ্যতা কমানো, দোষীদের শাস্তি প্রদানে প্রচলিত আইনগুলোর বাস্তবায়ন, মাদকের কুফল কারিকুলাম প্রাথমিক, মাধ্যমিক স্তরের পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্তি, মাদকাসক্তদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে। সর্বোপরি মাদক সম্পর্কে নিজে সচেতন হওয়া এবং অপরকে সচেতন করা, মাদকের বিরুদ্ধে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা এবং মাদককে ইতিবাচক ও উন্নত মূল্যেরোধের সঙ্গে ‘না’ বলা।