শ্যামনগরে চড়ক পড়তে গিয়ে নিহত-০১

0
1124
স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলার নুরনগরের কাটাখালী গ্রামে চড়ক পড়তে গিয়ে রামপ্রসাদ বিশ্বাস (২৫) নামে এক জন নিহত হয়েছে। সে নুরনগর ইউনিয়নের কুলতলী গ্রামের পরিতোষ বিশ্বাসের এক মাত্র ছেলে। শনিবার সন্ধ্যায় এঘটনা ঘটে
স্থানীয় সূত্রে জানা যায় কাটখালী গায়েন পাড়ায় বিগত তিন শত বছর ধরে হিন্দু ধর্মের বিশেষ পূজা ,মহাদেব পূজা হিন্দু রিতি অনুযায়ী চলে আসছে। আর এরই অংশ বিশেষ চড়ক পূজায় তাড়া থেকে ঝাপ দিতে গিয়ে (ব্লাক) নামক এক ধরনের লোহার পাত কপালে ঢুকে প্রচুর রক্ত ক্ষরণের কারণে মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।
এঘটনার সাথে সাথে স্থানীয় লোকজন এবং তার পরিবারের সদস্যরা প্রথমে শ্যামনগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে রোগীর অবস্থা খারাপ দেখে তারা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপর সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে খুলনা ২৫০শয্যা হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। রোববার বেলা ১১টার দিকে পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে তার স্বজনরা।

চড়ক পূজায় এবছর প্রায় ৫০জনের বেশি সন্ন্যাসি অংশ গ্রহণ করে, এর মধ্যে রামপ্রসাদ বিশ্বাস ও অন্যান্য সন্ন্যাসিরা একের পর এক তাড়া থেকে ঝাপ দিতে থাকে একপর্যায় তার পালা আসলে সে সর্বোচ্চ স্থান থেকে ঝাপ দেওয়ার কথা বললে তাকে নিষেধ করা হয় এবং নিচের স্থান থেকে ঝাপ দিতে বলা হয় কিন্তু সে সকলকে অমান্য করে উপরে উঠে ঝাপ দেওয়ার প্রস্তুতি নেয়।

এ সময় দর্শনার্থীদের ভাষ্যমতে সে কাপতে থাকে এবং বাতাসের প্রচন্ড বেগ থাকায় এই দূর্ঘটনা ঘটেছে। এখবর পেয়ে বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট এবং পূজা উৎযাপন পরিষদের শ্যামনগর ও সাতক্ষীরাস্থ নেতৃবৃন্দ সেখানে যান এবং ধর্মীয় কাজে মৃত্যু বরণ কারী রামপ্রসাদের মরদেহ তার পিতা মাতার কাছে প্রদান করার ব্যাবস্থা করতে সহযোগিতা করেন।

সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রামপ্রসাদের মরদেহ সাতক্ষীরা থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এবং সকল আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর কাজ চলছে বলে জানা গেছে। রামপ্রসাদের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান  জানান, চড়ক খেলার সময় উপর থেকে লাফ দেয় ।নিচে লোহার ত্রিশুল তার চোখের মধ্যে ডুকে যায় । এ সময় অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণ হয় । প্রথমে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কম্পপ্লেস্কে পরে খুলনা ২৫০ শয্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্য হয়। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।