শেষ ম্যাচেও যুদ্ধংদেহী কুমিল্লা

0
30
তামিম ইকবালকে বিশ্রাম দেওয়া হয়। তাহলে কি শেষ ম্যাচটা হালকাভাবেই নিলো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কুমিল্লার ব্যাটিং দেখে থাকলে উত্তরটা আপনার জানা। বিপিএলের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাটিং করে ৪ উইকেটে ১৭০ রান করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। জয়ের জন্য সিলেটের দরকার ১৭১ রান।
কয়েদকদিন পর প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ খেলতে হবে বলে শেষ ম্যাচে তামিম ইকবালকে বিশ্রাম দেওয়া হয়। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে খেলতে বাংলাদেশ ছেড়েছেন রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী। তাই এই ম্যাচে খানিকটা কম শক্তিশালী দল নিয়ে মাঠে নামেন শোয়েব মালিক। তবে ব্যাটিংয়ে নেমে সিলেটের বোলারদের উড়িয়ে দেয়েছেন লিটন দাস, মারলন স্যামুয়েলস, শোয়েব মালিকরা।
কুমিল্লার হয়ে আজ জ্বলে উঠেছিলেন লিটন দাস। ৩৭ রানের মধ্যে ইমরুল কায়েস ও জস বাটলারকে হারিয়ে বসা কুমিল্লার তাই বড় স্কোর গড়তে সমস্যা হয়নি। লিটন ও স্যামুয়েলস মিলে শাসন করেন সিলেটের বোলারদের। ৪৩ বলে ৬৫ রান করেন লিটন দাস। ৪৩ বলে ৫৫ রান করেন ক্যারিবীয় হার্ডহিটার মারলন স্যামুয়েলস। শেষের দিকে শোয়েব মালিকের ১৮ বলে ২৮ রানের ঝড়ে ১৭০ রানের বড় সংগ্রহ পায় কুমিল্লা।