শিক্ষাব্রতী ও সৃজনশীল উদ্যোক্তা

0
327

মুনসুর রহমান:

সমাজে কিছু মানুষ আছেন যারা খুব নীরবে মানুষের জন্যে কাজ করেন। প্রচারে নিজেকে প্রসারিত করেন না বরং গুটিয়ে রাখেন। মানুষের কাছে কিছু পাওয়া না পাওয়ার ধার ধারেন না। কেবল নিজের কাজ নিয়ে মগ্ন থাকেন। তার সম্পর্কে পর্যাপ্ত ও পূর্ণাঙ্গ তথ্যের অভাবে মানুষ তাকে ভুল বোঝে, তেমনি একজন মহান মানুষকে নিয়ে আমার এই লেখা। যিনি গোটা জীবন কাজ করেছেন মানুষের জন্যে। বিশেষ করে সমাজের দরিদ্র ও অবহেলিত জনগোষ্ঠীর জন্যে। সবার মাঝে স্বমহিমায় উদ্ভাসিত বাংলাদেশের সুধী সমাজে সম্মানিত সেই  মহান মানুষ প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ ও সফল উদ্যোক্তা প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আবদুল্লাহ ।

সৃজনশীল উদ্যোক্তা উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আবদুল্লাহ রয়েছে সফল পদচারনা। এর প্রতিফলন হিসেবে বিশেষ করে আবাসান এবং পর্যটন শিল্পে তিনি ব্যাপক সফলতা অর্জন করেন। শিক্ষা ক্ষেত্রে অবদানেও তিনি এখন সবার শীর্ষে। তাই মানুষের জাগরণের লক্ষ্যে তিনি শিক্ষাবিস্তার আন্দোলনে ব্রতী হন। শিক্ষা বিস্তারের পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করার উদ্দেশ্যে তিনি ২টি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়, ১টি মেডিকেল কলেজ, ১টি উচ্চমাধ্যমিক কলেজ ও স্কুলসমূহ পরিচালনা করছেন। এটি এখন দেশের সবচেয়ে বড় এডুকেশন গ্রুপ। তিনি দেশের ১ম সারির ‘নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ’-এর সম্মানিত চেয়ারম্যান। নর্দান ইউনিভার্সিটি শিক্ষা ক্ষেত্রে যে অবদান রেখে চলেছে তা জাতির জন্য এক গর্বিত অধ্যায়। তার তীক্ষè মেধাশক্তি, সুদূর প্রসারী কর্মপরিকল্পনা সর্বোপরি দক্ষ ব্যবস্থাপনায় নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ অতি অল্প সময়ে দেশ-বিদেশে যথেষ্ট খ্যাতি অর্জনে সক্ষম হয়েছে। বর্তমানে তিনি ‘নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এ- টেকনোলজি খুলনা’র প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য। তিনি বাংলাদেশের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (আইবিএ) এর একজন স্বনামধন্য অধ্যাপক। তিনি আন্তর্জাতিক বাজার ব্যবস্থাপনা, মুক্ত বাজার অর্থনীতি, ব্রান্ডিং, প্রোডাক্টিভিটি, আন্তর্জাতিক সম্পর্কের একজন প্রতিভাধর শিক্ষক এবং দীর্ঘ প্রায় ২৪ বছর আইবিএতে অধ্যাপনা করছেন। তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা এবং প্রাসাদ গ্রুপ অব কোম্পানিজ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান। সমৃদ্ধ দেশ গড়া ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে তিনি তার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে গড়ে তোলেন একের পর এক সফল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যেমন-
(ক) SYNERGY DEVELOPMENT LTD- ফিনল্যান্ড এবং সুইডেনের সাথে যৌথভাবে পরিচালিত একটি তৈরী পোষাক রপ্তানি প্রতিষ্ঠান। (খ) A.Y.M SYNERGY DEVELOPMENT LTD – মালয়েশিয়ার সাথে দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা পরিচালনা সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠান। (গ) PRAASAD NIRMAN LTD – এটি দেশের শীর্ষস্থানীয় একটি Real Estate Company। (ঘ) PRAASAD PARADISE LTD – থ্রি স্টার পর্যটন হোটেল, কক্সবাজার। (ঙ) SUNDARBAN SCIENTIFIC SHRIMP CULTURE LTD – বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চিংড়ী চাষ এবং বিদেশে রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান। (চ) BENGAL JAPAN INTERNATIONAL DEVELOPMENT LTD – জাপানের সাথে আমদানি-রপ্তানি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। (ছ) NORTHERN REAL ESTATE LTD – রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। (জ)  LIFE AND HOPE FOUNDATION – আর্ত পীড়িত মানবেতার স্বাস্থ্য, চিকিৎসা এবং শিক্ষা সেবায় তিনি এ প্রতিষ্ঠানি গড়ে তুলেছেন। (ঝ) SAIKAT SUNDARBAN HOTEL LTD – পর্যটন শিল্পের বিকাশে কক্সবাজারে একটি ফাইভ স্টার হোটেল এবং এমিউজমেন্ট পার্ক গড়ে তোলার কার্যক্রমও তিনি হাতে নিয়েছে।
বহুমাত্রিক ব্যক্তিত্বের অধিকারী প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহর জন্ম ১৯৬৪ সালে বৃহত্তর খুলনার সাতক্ষীরায়। তিনি ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র ছিলেন। ক্যাডেট কলেজে তিনি College Blue Ges Best All-Rounder Cadet হিসেবে নির্বাচিত হন। একই কলেজ থেকে তিনি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় সম্মিলিত মেধা তালিকায় স্থান লাভ করে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৬ সালে গ্র্যাজুয়েশনপ্রাপ্ত হয়ে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি ফিনল্যান্ডের বিখ্যাত হেলসিংকি স্কুল অব ইকোনোমিক্স অ্যান্ড বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন থেকে ইন্টারন্যাশনাল এমবিএ এবং অ্যামেরিকার ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস, অস্টিন থেকে উচ্চতর শিক্ষা লাভ করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে Labor Productivity’র উপর পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন। সম্প্রতি তিনি ইউনিভার্সিটি অব মালয়েশিয়া পারলিস থেকে পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশীপ অর্জন করেন। ছাত্র এবং শিক্ষাজীবনে তিনি প্রখর মেধার পরিচয় দিয়েছেন।
জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বেশ কিছু সেমিনারে তিনি পুরস্কৃত হয়েছেন। তিনি এসোশিয়েশন অব ম্যানেজমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ইন সাউথ এশিয়া (AMDISA) কর্তৃক আয়োজিত উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ এবং ওয়ার্কশপ প্রোগ্রামে বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি কর্তৃক ‘‘Best Performer’’এর খেতাব অর্জনসহ পুরস্কৃত হন। এই অসাধারণ ব্যক্তিত্ব তার সফল কর্মজীবনে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বহু সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। প্রকাশিত হয়েছে গবেষণাধর্মী তার বিখ্যাত ৩টি বই-
(ক) South Asian Hope SAARC: Will it Survive? (খ) Bangladesh RMG Industry: Competitiveness and Productivity । (গ) Myanmar: The Catalyst to Bridge ASEAN and SAARC -এসব বই তার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন চিন্তার পরিচয় বহন করছে। সার্কের উপর লিখিত বিখ্যাত ইংরেজি গ্রন্থটি ‘দক্ষিণ এশীয় জোট (সার্ক) : সংকট ও চ্যালেঞ্জ’ শিরোনামে বাংলায় প্রকাশ পেয়েছে। এছাড়াও আন্তর্জাতিক বাজার ব্যবস্থাপনা, মুক্ত বাজার অর্থনীতি, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য, ব্রান্ডিং, প্রোডাক্টিভিটি, লেবার প্রোডাক্টিভিটি, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, টেক্সটাইল এবং তৈরী পোষাক ইত্যাদি বিষয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে তার ২০টিরও অধিক গবেষণা নিবন্ধ।

দেশ সেবায় আত্মনিয়োগ করতে উচ্চশিক্ষা শেষে নিজ উদ্যোগেই দেশে ফিরে তিনি তার প্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএতে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। শিক্ষকতার পাশাপাশি আবাসন ও পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেন এবং সকল ক্ষেত্রেই সফলতা পেতে শুরু করেন। বিশেষ করে “ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট এসোশিয়েশন অব বাংলাদেশ (TDAB)’ এর ভাইস চেয়ারম্যান থাকাকালে তিনি জাতীয় পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন। প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ ‘নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ট্রাস্ট’, ‘নর্দান ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল’ এবং নর্দান কলেজ-এর সুযোগ্য চেয়ারপার্সন। তিনি ঢাকা ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব গর্ভনরস এর একজন সম্মানিত সদস্য। তিনি IBA এর ম্যানেজমেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (MDP) এর চেয়ারম্যান ছিলেন। প্রফেসর আব্দুল্লাহ তার পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের শিক্ষা প্রদান করার লক্ষ্যে বিশ্বের নামি-দামি প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে ‘আন্তর্জাতিক গবেষণা ও শিক্ষা-উন্নয়ন’ সংক্রান্ত Franchise Collaboration সম্পন্ন করেছেন। যেমন-
(ক) লন্ডন ভিত্তিক পৃথিবীর বিখ্যাত শিক্ষা কোম্পানী `Pearson-Edexcell’ , (খ) বৃটেনের `University of Hertfordshire’, (গ) OIC পরিচালিত International Islamic University Malaysia , (ঘ) University of Malaysia Perlis, (ঙ) Australian Institute of Business, (চ) Nantong College of Science and Technology, China, (ছ) US Govt.-এর  ‘American Center’ যা বাংলাদেশস্থ US Embassy কর্তৃক পরিচালিত, (জ) বিশ্বখ্যাত IDP, AustraliaÕi ‘IELTS Exam Center’

বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের অধিকারী প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আবদুল্লাহ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ফিনল্যান্ড, সুইডেন, নরওয়ে, রাশিয়া, লাটভিয়া, জাপান, ইতালি, জার্মানি, কানাডা, অষ্ট্রেলিয়া, চায়না, সৌদি আরব, কাতার, আবুধাবি, দুবাই, বাহরাইন, ভারত, নেপাল, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সফর করেছেন। শিক্ষাবিদ থেকে শিক্ষা উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ের সাথে সম্পৃক্তি এবং সৃজনশীল সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সাথে বিচক্ষণতার সাথে জড়িত সমাজ ও রাষ্ট্রের উন্নয়নে সদা নিবেদিত প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আব্দুল্লাহ।`