লিঙ্গ সমতায় দক্ষিণ এশিয়ায় সেরা, যুক্তরাষ্ট্রের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ

7
70
ওয়েব ডেস্কঃ
ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের করা ‘দ্য গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ’ রিপোর্টে গতবারের চেয়ে ২৫ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ৪৭তম৷ যুক্তরাষ্ট্রও বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে৷ গত বছর বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৭২তম৷বাংলাদেশের তুলনায় দক্ষিণ এশিয়ার বাকি দেশগুলো অনেক পিছিয়ে৷ মালদ্বীপ (১০৬) , ভারত (১০৮),  শ্রীলংকা (১০৯), নেপাল (১১১), ভুটান (১২৪) এবং পাকিস্তান (১৪৩) – কোনো দেশই এখনো একশ’র আগে আসতে পারেনি৷
২০০৬ সাল থেকে বৈশ্বিক লিঙ্গ সমতা সূচক প্রকাশ করছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম৷ এই সূচকে নারী-পুরুষের বৈষম্য ও বিভিন্ন সময়ে এ বৈষম্য দূরীকরণে দেশগুলোর অগ্রগতি তুলে ধরা হয়৷ স্বাস্থ্য ও গড় আয়ু, শিক্ষার সুযোগ, অর্থনীতিতে অংশগ্রহণ ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন—মূলত এ চারটি ক্ষেত্রে নারী-পুরুষের বৈষম্য বিশ্লেষণ করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়৷ এবার ১৪৪টি দেশের এ তুলনামূলক বিশ্লেষণ হয়৷ এ রিপোর্টে বাংলাদেশের দুই ধাপ নীচে অবস্থান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের৷
এবারও তালিকার শীর্ষে রয়েছে আইসল্যান্ড৷ নবম বারের মতো দেশটি এ তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে৷ বৈশ্বিক লিঙ্গসমতা সূচকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে নরওয়ে ও ফিনল্যান্ড৷ এ তালিকায় জার্মানির অবস্থান ১২তম৷ আর সবচেয়ে নিচের অবস্থানে রয়েছে ইয়েমেন৷
রিপোর্টে বলা হয়, গত বছর যে ১৪২টি দেশ এ তালিকায় ছিল, তাদের মধ্যে ৮২টি দেশ সার্বিক বিচারে লিঙ্গসমতার ক্ষেত্রে এগিয়েছে৷ এছাড়াও, গত বছরের তুলনায় এবার অনেক বেশি দেশ লিঙ্গসমতার ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো উল্লেখযোগ্য অবস্থানে এসেছে৷
আরএন/ এসিবি (ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম)

7 COMMENTS