‘রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিরুদ্ধে মানবতার প্রশ্নে সরকার ব্যর্থ’

0
35

অনলাইন ডেস্ক:

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিরুদ্ধে মানবতার প্রশ্নে বাংলাদেশ সরকার সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি-ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে “মিয়ানমারে অব্যাহত রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর নির্যাতন-নিপীড়ন ও গণহত্যার প্রতিবাদে” এক মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, অনেক ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিভিন্ন দেশ সফর করেন। কিন্তু রোহিঙ্গাদের প্রশ্নে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রী আশ্চর্যজনক নীরবতা পালন করছে। আমরা সরকারকে পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই রোহিঙ্গা ইস্যুতে দেশবাসী এবং সকল রাজনৈতিক দলের সাথে আলাপ আলোচনা করে ঐক্যবদ্ধভাবে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ইস্যুটিকে জাতিসংঘে উত্থাপন করা হোক। এক্ষেত্রে অনির্বাচিত সরকারের কূটনৈতিক ও মানবতা দু ক্ষেত্রেই ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। আন্তর্জাতিক ভাবে মানবতার ক্ষেত্রে এবংবিপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতেও তারা ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, মায়ানমারে মুসলমানদের উপর টার্গেট করে গণহত্যা চালানো হচ্ছে। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের সাথে আমাদের গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে। এ পাড়ের লোক ও পাড়ের লোক দাবি করে। এবং সেই সাথে এই পাড়ের সরকার ঔই পাড়ের সরকার ও দাবি করেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও বেদনার কারণ এই বর্তমানে রোহিঙ্গার প্রশ্নে ভারত সরকার বার্মার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। যা আমরা বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় দেখতে পাচ্ছি। আমরা জানি গায়ের জোরে সরকারের পাশে কেউ থাকে না, অনির্বাচিত অবৈধ সরকারের সাথে কেউ থাকে না, রোহিঙ্গাদের প্রশ্নে আমরা আবার সেটা দেখতে পেলাম। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে আমরা পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলাম তারা আমাদের সেই সুযোগটি দিয়েছিল। সেই ৭১ এর পরিস্থিতি মাথায় নিয়ে আমরা মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের মানবিক দৃষ্টিতে বাংলাদেশে আশ্রয় দিতে পারি। তার পর আলোচনার মাধ্যমে সংকট কাটিয়ে আমরা তাদেরকে মিয়ানমারে ফেরত দিতে পারি।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন আরও বলেন, বাংলাদেশে একটা রাজনৈতিক সংকট আছে। কিভাবে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা যায়। এ ব্যাপারে একটি আন্দোলন আছে, গুম, খুন, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জনগণকে রক্ষা করতেও আন্দোলন আছে এর ভেতর মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ১০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা করা হয়েছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন- বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, আল মামুন, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে.এম রকিবুল ইসলাম রিপন, কল্যাণ পার্টির ভাইস-চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান তামান্না ও স্বাধীনতা অধিকার আন্দোলনের সভাপতি।