রজব মাসের ফজিলত ও দোয়া

0
187

অনলাইন ডেস্ক:

চন্দ্রবর্ষের যেসব মাস ইসলামের দৃষ্টিতে তাৎপর্যপূর্ণ রজব এর অন্যতম। আমরা এখন রজব মাস অতিক্রম করছি। আগামী ২৪ এপ্রিল পালিত হবে পবিত্র লাইলাতুল মেরাজ। এই রাত বিশেষ ফজিলতের। এই রাতের ফজিলত ছাড়াও এ মাসের ফজিলতের কথা বহু হাদিসে বর্ণিত হয়েছে।

মহানবী (সা.) বলেন, ‘রজব মাস হচ্ছে মহান আল্লাহর কাছে অত্যন্ত গুরুত্ববহ একটি মাস, ফজিলতের দিক থেকে রমজানের পর অন্য কোনো মাস এর সমপর্যায়ের নয়। এ মাসে কাফেরদের সঙ্গেও যুদ্ধ করা হারাম। রজব মাস আল্লাহর মাস, শাবান মাস আমার মাস এবং রমজান মাস হচ্ছে আমার উম্মতের মাস। যে ব্যক্তি রজব মাসের একটি দিন রোজা রাখে, মহান আল্লাহ তার ওপর সন্তুষ্ট হন, তার প্রতি মহান আল্লহর ক্রোধ দূর হয়ে যায় এবং জাহান্নামের একটি দরজা তার জন্য বন্ধ হয়ে যায়।’

অন্য হাদিসে আছে, ‘রজব মাস হচ্ছে আমার উম্মতের ক্ষমা প্রার্থনার মাস। অতএব, এ মাসে অত্যধিক ক্ষমা প্রার্থনা কর, কেননা মহান আল্লাহ ক্ষমাশীল ও অত্যন্ত দয়ালু।’ রজব মাস এলে নবীজি (সা.) এই দোয়া করতেন, ‘আল্লাহুম্মা বারিক লানা ফি রাজাবা ওয়াশ শা’বান। ওয়া বাল্লিগনা রামাদান।’ অর্থাৎ ‘হে আল্লাহ আপনি আমাকে রজব ও শাবান মাসে বরকত দান করুন এবং মহিমান্বিত রমজান মাসে পৌঁছে দিন।’

রজব মাস থেকেই নবীজি (সা.) রমজানের প্রস্তুতিস্বরূপ রোজা রাখা শুরু করতেন। মহানবী (সা.) থেকে বর্ণিত হয়েছে, ‘যে ব্যক্তি রজব মাসের রাতগুলোর একটিতে (দুই রাকাত করে) নির্দিষ্ট একটি নিয়মে ১০ রাকাত নামাজ আদায় করবে, মহান আল্লাহ তার গুনাহ মাফ করে দেন। নামাজ আদায়ের পদ্ধতিটি হলো প্রতি রাকাতে সুরা ফাতেহার পর একবার সুরা কাফিরুন এবং তিনবার সুরা এখলাস যুক্ত করে পড়া।’ এছাড়া বিভিন্ন হাদিসে রজব মাসের ফজিলত ও আমলের কথা বর্ণিত হয়েছে।

মোটকথা, পবিত্র রমজান মাসের প্রস্তুতি গ্রহণ করার মাস হিসেবে রজব মাস মুসলমানদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি মাস। এজন্য সবার উচিত প্রিয় নবীজির (সা.) আদর্শ অনুসরণ করে এই মাসটিকে যথার্থভাবে আমলে কাটানোর চেষ্টা করা। রাসুলের (সা.) মতো রমজান মাসের প্রস্তুতি গ্রহণস্বরূপ রোজা রাখার আমল করা। রজবের প্রস্তুতির ওপর নির্ভর করে রমজানের প্রস্তুতি। যারা রজব মাস থেকেই প্রস্তুতি গ্রহণ করতে পারবেন তারাই রমজান কাটাতে পারবেন পুরোপুরি হক আদায় করে। এছাড়া রজব মাসের মহামান্বিত রাত লাইলাতুল মেরাজে ইবাদত-বন্দেগি করে কাটানোও মুমিনের দায়িত্ব। আল্লাহ আমাদেরকে সে তাওফিক দান করুন।

এস, এম হাবিবুল

LEAVE A REPLY