মৈত্রীর বন্ধনে নতুন নাম ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’

7
74
ডি এস ডেস্ক:
বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে দ্বিতীয় রেলযোগাযোগ শুরু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কলকাতা-খুলনা রেলপথে বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনটি যাত্রা শুরু করে। বেনাপোলে ইমিগ্রেশন হয়ে ট্রেনটি খুলনা যাবে। খুলনা থেকে বিকেলে আবার কলকাতায় ফিরে যাবে।
বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক অসীম কুমার তরফদার প্রথম আলোকে বলেন, ওই ট্রেনে বাংলাদেশের ছয়জন কর্মকর্তা ও ভারতের ১২ জন ক্রু ও চারজন কর্মকর্তা রয়েছেন। বেনাপোলে ট্রেনের যাত্রীদের স্বাগত জানাবেন পাঁচজন কর্মকর্তা।
বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, প্রতি বৃহস্পতিবার ট্রেনটি কলকাতা থেকে খুলনার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। বেলা ১টা ২০ মিনিটে আবার সেটি কলকাতায় ফিরে যাবে। ৪৫৬ জন যাত্রী এই ট্রেনের মাধ্যমে দুই দেশে যাতায়াত করতে পারবেন। ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে এসি কেবিন দুই হাজার (ভ্যাট ও ট্রাভেল চার্জসহ) ও এসি চেয়ার ১৫০০ টাকা।
ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রথম মৈত্রী ট্রেন ঢাকা-দর্শনা-আগরতলা রুটে চালু রয়েছে।
রেল বিভাগ বলছে, দেশ স্বাধীনের আগে খুলনা-বেনাপোল-কলকাতার মধ্যে রেল যোগাযোগ ছিল। পরবর্তীতে দেশ স্বাধীন হওয়ার পরই তা বন্ধ হয়ে যায়। যাত্রীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে গত বছরে বাংলাদেশ ও ভারত সরকার দুই দেশের মধ্যে মৈত্রী ট্রেন চালুর সিদ্ধান্ত নেয়।

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ

7 COMMENTS