মিষ্টি মেয়ে মিষ্টি’র মিষ্টি হাঁসি কি থেমে যাবে?

0
263
শিবপুর প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার তালা উপজেলার অালিপুর গ্রামের জয়দেব কর্মকার ও অান্না কর্মকারের মেয়ে মিষ্টি বাঁচতে চাই। মাত্র দুই বছর বয়সে তার শরীরে বাসা বেঁধেছে দুরারোগ্য মরণ ব্যাধি। মেয়েকে বাচাঁতে মানুষের দারে দারে ঘুরছেন বাবা জয়দেব কর্মকার ও মা অান্না কর্মকার।
মিষ্টির মা অান্না কর্মকার বলেন, ‘মিষ্টির বয়স মাত্র দুই বছর এরই মধ্যে শরীরে বাসা বেঁধেছে দুরারোগ্য মরণ ব্যাধি। একই সাথে শরীরে তিনটি রোগ দেখা দিয়েছে। মিষ্টিকে প্রথমে সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালে দেখানো হয়, সেখান থেকে নাজমুন ক্লিনিকে ডাঃ ধীরাজ মোহনের দেখানো হয়। প্রাথমিকভাবে তারা হার্টের সমস্যার কথা বলেন। পরবর্তীতে মিষ্টিকে ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পিজি হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। সেখান থেকে ২৪ শে নভেম্বর পাঠানো হয় বেঙ্গালোর নারায়না মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতালে। সেখানকার চিকিৎসক ডাঃ অসিমা ভেলতকার বলেন মিষ্টির হার্টের শিরা ছিদ্র হয়ে গেছে। সেই সাথে বাল্বও শুকিয়ে গেছে। অাগামী এক মাসের মধ্যেে আমার মেয়ের হার্টের অপারেশন করা না হলে সে মারা যাবে। ডাক্তার জানিয়েছেন চিকিৎসার জন্য ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা লাগবে।
মিষ্টির বাবা জয়দেব কর্মকার অশ্রুপাত কণ্ঠে বলেন, ‘আমার যা কিছু সম্বল ছিলো তাই দিয়ে চিকিৎসা করিয়েছি। এখন কোনো উপায় দেখছি না। আমার মেয়ের জন্য আপনারা কিছু করেন।’
দিনমজুর  জয়দেবের পক্ষে এতো টাকা জোগাড় করা সম্ভব না হওয়ায় তিনি সমাজের বিত্তবান ও হৃদয়বান মানুষের সাহায্য চেয়েছেন।
সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা:
ব্যাংক অ্যাকাউন্টঃ জয়দেব কর্মকার, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার এ্যান্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেড, সাতক্ষীরা ব্রাঞ্চ, A/C No:০০২৮১২০০১৬৪৮০.
যোগাযোগের মোবাইল নম্বর: ০১৭৪৭৫২৪৫০৫ মিস্টির বাবা

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ