কলারোয়ায় ছাত্রীদের ইভটিজিং করায় ৩ বখাটের জেল-জরিমানা

0
191
জাহিদ হোসাইন:
মাদ্রাসা ছাত্রীদের ইভটিজিং করার অপরাধে দুই বখাটেকে তিন মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও একজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
বৃহস্পতিবার দেরটার দিকে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরা পারভীন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এ দন্ড ও জরিমানা প্রদান করেন।
দন্ডপ্রাপ্ত বখাটেরা হলেন, কলারোয়া উপজেলার আলাইপুর গ্রামের শাহাজাহান আলীর ছেলে রাব্বি হাসান(১৮), হাবিবুর রহমানের ছেলে হোসেন বাবু(১৮) ও মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে ফাহিম হোসেন(১৬)।
হামিদপুর মাদরাসার ইংরেজি শিক্ষক রফিকুজ্জামান বলেন, অভিযুক্ত যুবকেরা গত কয়েক মাস ধরে পথিমধ্যে ছাত্রীদের উত্যক্ত বা ইভটিজিং করে আসছিলো। বুধবার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ইমরান হোসেন ওই যুবকদের সর্তক করে দেন। কিন্তু ফের তারা বৃহষ্পতিবার মাদ্রাসা ছাত্রীদের ইভটিজিং করে। বিষয়টি পুলিশ জানতে পেরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এই শাস্তি প্রদান করেছে।
কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার নাথ বলেন, কয়েক মাস ধরে ওই বখাটেরা উপজেলার হামিদপুর সিদ্দিকিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রীদের মাদরাসায় যাওয়া আসার পথে উত্যক্ত করে আসছে। বৃহস্পতিবারও তারা মাদরাসার সামনে অবস্থান করে ছাত্রীদের বিভিন্ন ভাবে উত্যক্ত করতে থাকে। বিষয়টি ছাত্রীদের অভিভাবকেরা জানতে পেরে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে। পরে ওই স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আটক ওই বখাটেরদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক অপরাধের শ্রেণিভেদে রাব্বি ও হোসেন বাবুকে তিন মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ফাহিমকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত।