‘ভোটে নারীরা জালিয়াতি করে না’

0
29
ডি এস ডেস্ক:
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ভোটে নারীরা জালিয়াতি করে না। তারা বাসার কাজ করে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সুষ্ঠুভাবে ভোট দেন। অনেক পুরুষ ভোটার নির্বাচনে ঝামেলা করে। তারা অনেক সময় জাল ভোটও দেয়।
মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) রাজধানীর গুলশানে একটি অভিজাত হোটেলে গোল টেবিল বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি।‘অ্যাডভান্সিং উইমেনস লিডারশিপ ইন ইলেকশন ‘ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠকের আয়োজন করে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল।
সিইসি বলেন, আমাদের রাষ্ট্রে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীরা নেতৃত্ব দিচ্ছে। আগামীতে আমরা সকল নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারী রাখার জন্য বলা হয়েছে। আশাকরি সকল রাজনৈতিক দল এটি করবে।
তিনি বলেনন, রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপের সময় বড় দলগুলোতে নারী নেতৃত্ব অংশ নেয়নি। আমি দলগুলোকে এ বিষয়ে সংলাপে অবহিত করেছি।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা ব্লুম বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্রে সহিংসতার স্থান নেই। যখন নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ থাকবে, স্বাধীন ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটারদের এর ফলাফলও বেশি আস্থাশীল হবে।
তিনি বলেন, গণতন্ত্র মানে ভ্যালট বাক্সে ভোট দেওয়া নয়। এর মধ্যে রয়েছে প্রাক নির্বাচন এবং নির্বাচন পরবর্তী সময়। একটি দৃঢ় গণতন্ত্রে নাগরিকেদের স্বাধীনভাবে এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে তাদের প্রার্থীর জন্য প্রচারণা চালাতে পারা উচিত। কোনো ধরনের ভয়, চাকরি হারানোর আশঙ্কা ছাড়া ভোটের জন্য নিবন্ধন করতে পারা এবং বৈধ নির্বাচনের ফলাফলকে শ্রদ্ধা করতে পারা উচিত।
বার্নিকাট বলেন বলেন, রাজনৈতিক দল, তরুণ ও নারী নেত্রীর সঙ্গে অন্তর্ভূক্তিকরণ রাজনীতি নিয়ে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে দৃঢ় করতে নারীদের নিরাপদ অংশগ্রহন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এখনো বেশ কিছু বিশিষ্ট নারী নেত্রী থাকা সত্ত্বেও রাজনৈতিক দলে এবং নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া পিছিয়ে আছে।

দৈনিক সাতক্ষীরা/জেড এইচ