ভারতের গুগল সার্চে সানির চেয়ে এগিয়ে প্রিয়া

0
124
অনলাইন ডেস্ক:
এই তো কয়েক দিন আগে ভারতে ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিন গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজখবর নেওয়া হতো সানি লিওনের। এ তালিকায় তাঁর পেছনে ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ, আনুশকা শর্মা ও দীপিকা পাডুকোন। কিন্তু গত কয়েক দিনে প্রিয়া প্রকাশ ভাররিয়েরের ভ্রু নাচন উল্টে দিয়েছে সব হিসাব। এক ভ্রুর নাচনে সামাজিক মাধ্যম তো বটেই, গুগলও এখন প্রিয়াময়। জিনিউজের খবরে প্রকাশ, হুট করে জনপ্রিয় হওয়া প্রিয়ার খোঁজখবর জানতে গত কয়েক দিনে গুগল সার্চে প্রিয়া পেছনে ফেলেছেন সানি লিওনসহ ক্যাটরিনা, আনুশকা ও দীপিকার মতো অনেক বলিউড তারকাকে। সামাজিক মাধ্যমে প্রিয়ার ভাইরাল হওয়া নিয়ে সম্প্রতি একটি টুইটও করেছেন প্রিয়া। তিনি লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ অরু আদার লাভ। আমি হতবাক যে সামাজিক মাধ্যমে আমার প্রতি সমর্থন দেখে। কখনো ভাবিনি যে আমার অভিষেক জাতীয় ইস্যুতে পরিণত হবে। আমি ওমর লুলু (অরু আদার লাভের পরিচালক) স্যারের কাছে কৃতজ্ঞও। বেশ বুঝতে পারছি এরই মধ্যে আমার নামে টুইটারে অ্যাকাউন্টের সংখ্যা বেড়ে চলছে।’ সম্প্রতি ভ্রুর নাচন দিয়ে সামাজিক মাধ্যমে সবার ক্রাশে পরিণত হন ১৮ বছর বয়সী প্রিয়া। বর্তমানে কেরালার ত্রিশুরে বিমলা কলেজের বিকমের ছাত্রী। আর যে ভ্রুর নাচনে তিনি বিখ্যাত হয়েছেন, সে ভিডিওটি ছিল একটি মালায়লাম চলচ্চিত্রের গানের অংশবিশেষ। গানটির নাম ‘মানিকইয়া মালারাইয়া পুভি’। ছবিটির নাম ‘অরু আদার লাভ’। ‘অরু আদার লাভ’ ছবিটির মাধ্যমে চলচ্চিত্র দুনিয়ায় পা রাখেন প্রিয়া প্রকাশ। চলচ্চিত্র ছাড়াও বিভিন্ন ফ্যাশন শোতে র‍্যাম্প মডেল হিসেবে হেঁটেছেন প্রিয়া। ২০১৭ সালে ভারতের জনপ্রিয় ফ্যাশন শো ‘ঐশ্বরানী ২০১৭’-তেও র‍্যাম্প মডেল হিসেবে দেখা গিয়েছিল তাঁকে।মডেলিংয়ের পাশাপাশি মোহিনীঅট্টম নাচেও বিশেষভাবে পারদর্শী প্রিয়া। তাই ওই রকম ভ্রুর নাচন তাঁর জন্য কঠিন কিছু হওয়ার কথা নয়। টুইটার ও ইনস্টাগ্রামেও সরব উপস্থিতি রয়েছে প্রিয়ার। ইনস্টাগ্রামে তাঁর ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় ৫৫ হাজার। আর তাঁর এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তা বেড়েছে প্রায় ১৫ হাজার।