বিকেলের নাস্তায় ঝটপট চটপটি

0
71

অনলাইন ডেস্ক :

চটপটি কিংবা ফুসকা খেতে পছন্দ করেন না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। বিশেষ করে নারী এবং শিশুদের প্রিয় খাবার চটপটি। আর তা যদি হয় বিকেলের নাস্তা কিংবা ঘরোয়া আড্ডায় তাহলে তো কথাই নেই। তবে দলবেঁধে বাইরে গিয়ে চটপটি খেলে বাঁধতে পারে পেটের অসুখ। কারণ বাইরের খাবার সবসময় স্বাস্থ্যকর নাও হতে পারে। তাই ঘরে বসেই তৈরি করতে পারেন মজাদার চটপটি। রইলো রেসিপি-

উপকরণ :
মটর ডাল দেড় কাপ (সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন), সিদ্ধ করা চটকানো আলু ২টি, টমেটো কুচি ১টি, সিদ্ধ ডিম টুকরো করে কাটা ২টি, শসা কুচি ২টি, পেঁয়াজ কুচি ২টি, আস্ত জিরা ৩ চা চামচ, শুকনো মরিচ ২টি, গোলমরিচ ৬টি, কাঁচা মরিচ কুচি ৫টি, ধনেপাতা কুচি আধা কাপ, টেস্টিং সল্ট আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, চিনি ১ চা চামচ, লবণ দেড় চা চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি :
গরম কড়াইয়ে জিরা, লাল মরিচ এবং গোলমরিচ তেল ছাড়া ভাজুন। নামিয়ে ঠান্ডা করে গুঁড়া করে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা বাদামি করে ভেজে তুলে রাখুন।

এক কাপ পানিতে তেঁতুল দিয়ে হালকা ফুটিয়ে নিন। এর মধ্যে চিনি এবং ১ চিমটি মসলার গুঁড়া দিয়ে আরো ৫ মিনিট ফোটান। ঠাণ্ডা হলে ভালো করে তেঁতুল গুলে ছেঁকে নিন। চটপটির ডাল, লবণ ও হলুদের গুঁড়া দিয়ে নরম হওয়া পর্যন্ত চুলায় সিদ্ধ করুন। যাতে একেবারে গলে বা শুকিয়ে না যায়।

এখন ভাজা পেঁয়াজ, আলু, টমেটো, কাঁচা মরিচ, অবশিষ্ট মসলার গুঁড়া, টেস্টিং সল্ট, ২ টেবিল চামচ তেঁতুল গোলা এবং তিন ভাগের ১ ভাগ সিদ্ধ ডিম চটপটির মধ্যে দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট রান্না করুন।

চুলা থেকে নামিয়ে শসা কুচি, টুকরো করা ডিম এবং ধনেপাতা কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন। সঙ্গে দিন তেঁতুলের সস।

এস এম পলাশ

LEAVE A REPLY