বাণিজ্য মেলায় ভিড় বাড়ছে

0
205

অনলাইন ডেস্ক:

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ধীরে ধীরে ভিড় বাড়তে শুরু করেছে।

বৃহস্পতিবার মেলার চতুর্থ দিন সব বয়সের ক্রেতা ও দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখরিত ছিল মেলা প্রাঙ্গণ।ভিড় বাড়ার সঙ্গে বেড়েছে বিক্রিও। এরপরও বিক্রেতাদের অপেক্ষা শুক্রবারের জন্য। কসমেটিকস বিক্রেতা মো. মাছুম মিয়া বলেন, আজই বেশ লোকের আনাগোনা বেড়েছে। তবে কাল (শুক্রবার) আরো বাড়বে বলে আশা করি। প্রতি বছরই সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ভিড় বেশি থাকে।

বৃহস্পতিবার সরেজমিন মেলা ঘুরে দেখা যায়, সকালের দিকে অনেক স্টলে বিক্রি কম হলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে বেচাকেনা শুরু হয়। ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সাড়া পেয়ে আশাবাদী স্টল মালিকরা। প্রায় প্রতিটি স্টল-প্যাভিলিয়নে রয়েছে নানা আয়োজন ও আকর্ষণীয় সব অফার।

চতুর্থ দিনেও কিছু স্টল ও প্যাভিলিয়নে নির্মাণকাজ ও অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জার কাজ করতে দেখা যায়।

মেলায় ক্রেতা আকর্ষণে পণ্যে নানা ছাড় ও অফার দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সব প্রতিষ্ঠানের স্টল ও প্যাভিলিয়নে নতুন পণ্য প্রদর্শন এবং অনেক প্রতিষ্ঠান রপ্তানিযোগ্য পণ্য প্রদর্শন করায় ক্রেতাদের নজর কেড়েছে। আবার বিদেশি স্টলগুলোর পণ্যের প্রতি ক্রেতাদের আকর্ষণ লক্ষ্য করা গেছে।

মেলায় যেসব স্টল ও প্যাভিলিয়নে পণ্য সাজানো হয়েছে সেগুলোতে বিক্রিতে ভালো সাড়া মিলছে।

এবার মেলায় বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন ছাড়াও ৬৫টি প্রিমিয়াম প্যাভিলিয়ন, ১৬টি সাধারণ প্যাভিলিয়ন, ২৩টি বিদেশি প্যাভিলিয়ন, ছয়টি রিজার্ভ প্যাভিলিয়ন, সাতটি রিজার্ভ মিনি প্যাভিলিয়ন, ৭২টি প্রিমিয়ার স্টল, ১৩টি বিদেশি প্রিমিয়ার স্টল, ২৫৩টি সাধারণ স্টল, ৩১টি খাবারের স্টল, নারীদের জন্য সংরক্ষিত ২০টি স্টল, একটি বাণিজ্য তথ্য কেন্দ্র, তিনটি রেস্টুরেন্ট এবং মা ও শিশুদের জন্য তিনটি স্টল রয়েছে।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রের পাশের মাঠে মাসব্যাপী এ মেলা আয়োজনের দায়িত্বে রয়েছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

দৈনিক সাতক্ষীরা/এমএইচএম