বাগেরহাটে কন্যা শিশুদের স্বাবলম্বি করতে কন্যা বর্তিকা কর্মসুচি চালু

0
129

ডেস্ক রিােপট: বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার উন্নয়নের রোল মডেল বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদের নিজেস্ব উদ্যোগে নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি ইতিবাচক ও সম্মানজনক দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে তোলার লক্ষ্যে কন্যা বর্তিকা কর্মসুচি চালু করতে যাচ্ছেন ইউনিয়ন পরিষদের নারী ও শিশু কল্যান সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি। এই কর্মসূচি চালু করা হলে শতাধিক কন্যাশিশু সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়ে রাষ্ট্রের সম্পদে পরিনত হবে। বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদের মত দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে যদি এই কন্যা বর্তিকা কর্মসুচি চালু করা হয়, তহালে সরকারের ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নে আরো এক ধাপ এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা। জানা গেছে, দেশ জাতি তথা ইউনিয়নের উন্নয়নের লক্ষ্যে বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদ ১৪টি স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে বেশ কয়েকটি প্রকল্প চালু করেছেন। সেই প্রকল্প গুলি বাস্তবায়িত হয়ে দেশ জাতি তথা সকলের কল্যানে বলিষ্ঠ ভুমিকা পালন করেই চলেছেন। এবার তারা কন্যাশিশুর প্রতি ইতিবাচক ও সম্মানজনক দৃষ্টি ভঙ্গি গড়ে তোলার লক্ষ্যে কন্যা বর্তিকা নামের একটি কর্মসুচি চালু করতে যাচ্ছেন। এটি অচিরেই বাস্তব রুপ ধারন করবে। সুত্র মতে যে সমস্ত পরিবারে পুত্র সন্তান নাই এমন পরিবারে যাদের একটি বা দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে সেই পরিবারকে এই কর্মসূচির আওতায় নেওয়া, আঠারো বছর পর্যন্ত কন্যাশিশুকে শিক্ষা সহায়তা প্রদান করা। আঠারো বছর বয়সের পূর্বে কন্যাশিশুর বিয়ে নিরোধ নিশ্চিত করা। সংশ্লিষ্ঠ পরিবারকে ভিজিডি কর্মসূচি বা ফেয়ার প্রাইজ কার্ডের আওতাভুক্ত আনায়ন করা, কন্যাশিশু বা কিশোরীকে বিদ্যালয়ে উপবৃত্তি প্রদানে উদ্যোগ নেওয়া কিংবা পিতা মাতাকে অতিদরিদ্রের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচিতে অন্তভূক্ত করা, প্রতিটি পরিবারে উন্নত স্যানিটেশন ব্যাবস্থা নিশ্চিত করে পরিছন্ন পরিবেশ গড়ে তোলা, ভালবাসস্থান না থাকলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত গৃহহীনদের জন্য গৃহনির্মাণ কর্মসূচিতে অন্তরভূক্ত করা, পরিবারকে কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রত্যাক্ষ্য সেবা ও পরিচর্যার আওতায় আনা, শুধু তাই নয়, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন, সুপেয় পানি ও খাদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করণের মাধ্যমে উক্ত পরিবারকে দারিদ্রমুক্ত করার সার্বিক উদ্যোগ গ্রহন করেছেন এই ইউনিয়নের ৫ম বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান স্বপন দাশ। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ এ্যাসোসিয়েশনের আহবায়ক, স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ ও বেতাগা ইউপির চেয়ারম্যান স্বপন দাশ এর সাথে আলাপ করা হলে তিনি স্থানীয় সংবাদকর্মিদের বলেন, সার্বিক পটভূমি বিবেচনায় কন্যাশিশুদের প্রতি বাঞ্চনা ও অবহেলা দুর করতে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদ পারিবারিক বিরোধ নিরসন, নারী ও শিশু কল্যান সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির তত্তাবধানে কন্যা বর্র্তিকা কর্মসুচি নামে একটি প্রকল্প চালু করে তা বাস্তবায়ন করার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে আগামী দিনের লিঙ্গ নির্বিশেষে একটি বৈষম্যহীন সমাজ গঠন ত্বরান্বিত হবে বলে তিনি আশাবাদী। উলে­খ্য সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পৃথিবীর অন্যতম সফল রাষ্ট্র বাংলাদেশ। এই সাফল্য বাংলাদেশকে ধারাবাহিকভাবে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আতœবিশ্বাসী করে তুলেছে। বিদ্যমান সামাজিক বাস্তবতায় আমরা এখনও কিছু বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন। দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় তিন কোটি কন্যাশিশু। লিঙ্গ বৈষম্যের কারণে শিক্ষা স্বাস্থ্য শ্রম বিবাহ সামাজিক মর্যাদা নিরাপত্তাসহ প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রতিটি মুর্হুত্বে এই বিশাল জনগোষ্ঠি নানা প্রতিকুলতার সম্মুখীন হচ্ছে। পুষ্ঠিহীনতা নিরক্ষতা পারিবারিক নির্যাতন এবং বাল্যবিবাহের ফলে একটি পুষ্ঠিহীন কন্যা শিশু জন্ম দিচ্ছে। এভাবে আমরা একটি অপুষ্ঠির দুষ্ঠুচক্রে আবর্তিত হচ্ছি। অন্যদিকে এই পূষ্ঠিহীন কন্যা শিশুর জন্ম দিয়ে যাবতীয় দায়ভার কাঁধে নিয়ে নানা প্রকার নির্যাতনের শিকার হচ্ছে মা কন্যাশিশুটি। এই সমস্ত সমস্যা থেকে পরিত্রান পেতে বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদ তাদের নিজেস্ব উদ্যোগে যে মহতী কাজ করে চলেছেন তা জনগণের কল্যান বয়ে আনবে বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা।