বসে বসে পা নাড়ান, ধমনির রোগ তাড়ান

10
288

স্বাস্থ্য ডেস্ক :
অনেকে বসে বসে পা নাড়ান। অভ্যাসটা আবার পছন্দ করেন না অন্যরা। খুব ভদ্রোচিতও নয় বিষয়টি। যারা পছন্দ করেন না তারা শুনে রাখুন, কাজটা কিন্তু মন্দ নয়। বরং ভালোই!
যদি আপনি দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারে বসে কাজ করেন, তাহলে অনবরত পা নাড়াতে ভুলবেন না। একটি সাম্প্রতিক গকেষণায় পাওয়া গেছে, ঠাঁয় বসে থাকার সময় পা নাড়ালে পায়ের রক্ত ধমনি ভালো থাকে। প্রতিরোধ হয় ধমনিসংক্রান্ত রোগ।
দীর্ঘসময় বসে থাকার ফলে পায়ের ধমনির কার্যকারিতা নষ্ট হয়। এ ক্ষতি রুখতে সামান্য পরিমাণ পা নাড়ানোও উপকারি কিনা তা জানার ছিলো আমাদের। জানান কলোম্বিয়ার ইউনিভার্সিটি অব মিসৌরির সহকারী অধ্যাপক জওমে পেডিলা।
তিনি জানান, যখন আমরা আশা করছিলাম- অনবরত পা নাড়ালে নিম্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে রক্ত চলাচল বাড়ে। তখন আমরা আশ্চর্যজনকভাবে দেখলাম, এই ধমনিসংক্রান্ত ক্রিয়া ক্ষতি রোধ করার জন্যও যথেষ্ট।
গবেষণায়, ১১ জন সুস্থ নারী-পুরুষের পায়ের রক্তনালীর ক্রিয়া পা নাড়ানোর তিনঘণ্টা আগে-পরে তুলনা করে দেখা হয়। ব্যক্তিদের এক পা স্থির ও অন্যপা নাড়াতে বলা হয়। পায়ের নিচের অংশে রক্ত চলাচল কেমন তা মেপে দেখা যায়, আড়াইশোবার পা নাড়ানোর ফলে সে পায়ে রক্ত সঞ্চালন বেড়েছে। যেখানে স্থির অন্য পায়ে রক্ত সঞ্চালন কমেছে। গবেষণাটি প্রকাশ করেছে আমেরিকান জার্নাল অব সাইকোলজি- হার্ট অ্যান্ড সার্কুলেটরি সাইকোলজি।
তারতম্য বোঝার জন্য যদিও একপায়ের ওপর গবেষণা করা হয়েছে, কিন্তু গবেষকরা বলেন, দু’পায়ের সমান নাড়াচাড়ায় সুফল বেশি পাওয়া যায়।
অতিরিক্ত টিপস দিয়ে পেডিলা বলেন, দীর্ঘসময়ে বসে থাকার কাজ করলে বিরতি নিয়ে একটু হাঁটাচলা ও কিছু সময় দাঁড়ানো উচিত। তা সম্ভব না হলে পা নাড়ানো যেতে পারে। কিছুটা নড়াচড়া একেবারেই নড়াচড়া না করার চেয়ে শ্রেয়।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।

10 COMMENTS