পেপল সার্ভিসে রেমিটেন্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে

0
33
অনলাইন ডেস্কঃ
বিশ্বব্যাপী অনলাইন পেপল পেমেন্ট সিস্টেম চালু হওয়ায় আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশে রেমিটেন্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পেপল পেমেন্ট সিস্টেম জুম ইতোমধ্যেই বাংলাদেশে চালু হয়েছে।
রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এম. আতাউর রহমান প্রধান গতকাল বলেন, যে কোন একাউন্ট হোল্ডার খুব সহজেই এখন অল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারেন। বিদেশে বসবাসকারী প্রবাসী বাংলাদেশীরা এখন এই বৈধ চ্যানেলে দেশে টাকা পাঠাতে উৎসাহিত হবে। তিনি বলেন, এই সেবার মাধ্যমে শুধু ফ্রিল্যান্সাররাই নন, অনাবাসী বাংলাদেশীরাও এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন এবং ঝামেলা মুক্ত এই ইলেক্ট্রোনিক চ্যানেল ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে দেশে রেমিটেন্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে।
আইসিটি বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম আবু নাসের বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারি অনাবাসী বাংলাদেশী জুমের মাধ্যমে তাদের পেপল একাউন্ট ব্যবহার করে সরাসরি ৪০ মিনিট থেকে দুই ঘন্টার মধ্যে বাংলাদেশে তাদের ব্যাংক হিসাবে টাকা পাঠাতে পারবে।
তিনি বলেন, বিশ্বে ২০৩ টি দেশে পেপল সুবিধা রয়েছে। এই ২০৩ টি দেশের মধ্যে ২৯ টি দেশে পেপল পূর্ণাঙ্গ সেবা দিচ্ছে। ১০৩ টি দেশের জন্য শুধুমাত্র অন্তর্মুখী সুবিধা রয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের জন্য এই সেবাটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে চালু হয়েছে। দেশটি বংলাদেশের ৪৫ শতাংশ আউট সোর্সিং বাজার কাভার করেছে। খুব শিগগিরই অন্যান্য দেশে বাংলাদেশের জন্য সার্ভিসটি সম্প্রসারণ করা হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য এবং যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ গত ১৯ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম পেপল উদ্বোধন করেন।
জুম সার্ভিসের আওতায় রেমিটেন্সের পরিমাণ ১ হাজার মার্কিন ডলারের বেশি হলে ফ্রিল্যান্সাররা বিনামূল্যে এই সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবে।
জুম সার্ভিসের আওতায় যে কেউ এক সঙ্গে ১০ হাজার ডলার পাঠাতে পারবেন এবং গ্রাহকরা ৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে এই সেবা গ্রহণ করতে পারবে। ব্যাংকগুলো হলো- সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, সিটি ব্যাংক ও ইসলামী ব্যাংক।
জনসংযোগ কর্মকর্তা নেসার বলেন, এতে রেমিটেন্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, প্রবাসী শ্রমিকরা অক্টোবর মাসের প্রথম ১৩ দিনে ৫৬৬ দশমিক ৫৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিটেন্স দেশে পাঠিয়েছে। বিগত বছরের এ সময়ে রেমিটেন্স এসেছিল, ১৪২ দশমিক ৬১ মিলিয়ন ডলার।