পুলিশের পেশাদারিত্ব বৃদ্ধি করতে যা যা করা দরকার প্রধানমন্ত্রী তাই করছেন: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী

0
661
জাহিদ হোসাইন:
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ১০ বছর আগের পুলিশ আর এখনকার পুলিশ এক না। এখনকার পুলিশ জনগনের বন্ধু। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে এখনকার পুলিশ যথাযথ ভ’মিকা পালন করে চলেছেন। সেজন্য আমরা একটা নিরাপদ বাংলাদেশ পেয়েছি। উন্নয়ন যতই হোক না কেন, এদেশের মানুষ যদি শান্তিতে ঘুমাতে না পারে, ছাত্র ছাত্রীরা যদি নিরাপদে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে না পারে, ব্যবসায়ীরা যদি সঠিকভাবে ব্যবসা করতে না পারে তবে সব উন্নয়ন মুখ থুবড়ে পড়বে। এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বোঝেন আর সেজন্যেই তিনি পুলিশকে আধুনিক পুলিশ বানাচ্ছেন। পুলিশের পেশাদারিত্ব বৃদ্ধি করতে যা যা করা দরকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাই করছেন।
শনিবার সাতক্ষীরার দেবহাটায় নতুন থানা ভবন উদ্বোধন শেষে সুধিসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আজ জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেত্রীত্বে জনগন সোচ্চার হয়েছেন। জনগন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী জঙ্গিদমনে যথেষ্ট সজাগ। এজন্যই আমরা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে সফল হয়েছি। জঙ্গি পুরোপুরি নির্মুল হয়ে গেছে। বাংলাদেশে আর কখনও জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিতে পারবে না।
এর আগে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে কফি আনান কমিশন এবং বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রীর পাঁচ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে তবেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্ভব হবে। রোহিঙ্গা সমস্যা ১৯৭৮ সাল থেকে চলে আসছে। মিয়ানমারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথে আমাদের এ ব্যাপারে বৈঠক হয়েছে।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আরও বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আদালতের নির্দেশে কারাগারে আছেন এবং তিনি সুস্থ আছেন। সেখানে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষা করা হচ্ছে । তবে তিনি কিছু ক্রনিক রোগে ভুগছেন। তিনি জেল কোড অনুযায়ী প্রাপ্য সব সুযোগ লাভ করছেন।
কোনো ভাবেই মাদককে ছাড় দেওয়া হবে না উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের সর্বাত্মক অভিযান অব্যাহত আছে। তিনি বলেন যারা মাদক কারবারের সাথে জড়িত তাদের ছবি দিয়ে সংবাদপত্রে নাম পরিচয় প্রকাশ করা হবে। সুন্দরবনে জলদস্যু দমনে কঠোর অভিযানের পাশাপাশি তাদের আত্মসমর্পন প্রক্রিয়া চলছে। কাল রোববার আরও অনেক জলদস্যু বাগেরহাটে অস্ত্রসহ তার কাছে আত্মসমর্পন করবে।
এসময় মন্ত্রীর সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আফম রুহুল হক এমপি, সাতক্ষীরা ১ , ২ও ৪ আসনের সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, এসএম জগলুল হায়দার, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য মিসেস রিফাত আমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন, পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান প্রমুখ।