পাটকেলঘাটায় হারিয়ে যাচ্ছে হালের গরুর এবং কাঠের লাঙল

0
99

ডেস্ক রিপোট:
পাটকেলঘাটায় বাঙালির ঐতিহ্য কাঠের লাঙল কালের বিবর্তনে এখন প্রায় বিলুপ্তর পথে। চাষাবাদের অন্যতম উপকরণ হিসাবে কাঠের লাঙল ছিল অপরিহার্য। এক সময় লাঙল ছাড়া গ্রাম বাংলায় চাষাবাদের কথা চিন্তাই করা যেত। কলের লাঙল সে স্থান দখল করায় দিনে দিনে হারিয়ে যেতে বসেছে কাঠের লাঙল। আগে পাটকেলঘাটা থানার বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামেই কাঠের লাঙল দিয়ে চাষ করতে দেখা যেত। এখন আর চোখে পড়ে না। এক সময় ক্ষেতে খামারে কৃষক লাঙল ও মই দিয়ে চাষাবারে দৃশ্য সবার নজর কাড়ত। হাজার বছরের ইতিহ্য চাষাবাদের বহুর ব্যবহারিত কাঠের হাতল ও লোহার ফালবিশিষ্ট লাঙল আজ বিলুপ্ত পথে। আধুনিক যুগে চাষাবাদের যান্তিক উপকরন আবিষ্করের প্রভাবে ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে ,জোয়াল, মই ও হালের বলদ। এসবের ব্যবহার স্বল্প আয়ের  কিছু সংখ্যাক কৃষক পরিবারে কোন রকমের টিকে থাকলেও বিঞ্নের ক্রমশ উৎকর্ষের যুগে কৃষিকাজে ঠাই করে নিয়েছে। পাওয়ার টিলার ও ট্রাক্টরও ভাড়া দিচ্ছে। এখন গ্রাম গঞ্চের অনেকেই কালের সাক্ষী লাঙল , জোয়াল,মই ইত্যাদি সরঞ্চামের পসরা সাজিয়ে বসতে দেখা যায় না। যারা এগুলোকে পেশা হিসেবে নিয়ে তৈরী করতৈন তাদেও অনেকেই এখন বেকার । পর্যাপ্ত ক্ষেত খামার না থাকায় এবং চাষ জমি বাদ দিয়ে ঘের করার কারনে এটি আজ বিলুপ্তির পথে বলে মনে করছেন সাধারন চাষীরা।