পাইকগাছায় অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধার

37
258

ডেস্ক রিপোর্ট :
পাইকগাছায় অপহৃত ভিকটিম স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপহরণ মামলা হয়েছে।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দেলুটি ইউপি’র জিরবুনিয়া গ্রামের মোঃ আলম খাঁ’র নবম শ্রেণী পড়–য়া মেয়ে ঘটনার দিন ১৭ আগস্ট সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে পাশ্ববর্তী দেলুটি গ্রামের সাকাত বিশ্বাসের ছেলে ইউছুপ বিশ্বাস (২৭) ও তার সহযোগীরা স্কুল ছাত্রীকে জোর পূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়।
এ ঘটনায় ২২ আগস্ট স্কুলছাত্রীর মা জুলেখা বিবি বাদী হয়ে ইউছুপ বিশ্বাস (২৭), রুহুল আমিন গাজী (২৮), মনিরুজ্জামান সানা (২৫), আরিফুল সানা (১৮), আব্দুল মান্নাফ গাজী (২৭), নজরুল গাজী (৪০) ও কাদের গাজী (৩৬) সহ ৭ জনকে আসামী করে থানায় অপহরণ মামলা করে। যার নং- ২৫।
মামলার এক দিন পর তদন্ত কর্মকর্তা এসআই গৌতম চন্দ্র মন্ডল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে দেলুটি এলাকা থেকে ভিকটিম স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এদিকে প্রেমজ সম্পর্কের সূত্রধরে অপহরণের এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মারুফ আহম্মদ জানান, বুধবার সকালে ভিকটিম স্কুল ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

37 COMMENTS

  1. Thanks for your advice on this blog. One particular thing I want to say is the fact that purchasing consumer electronics items from the Internet is certainly not new. Actually, in the past several years alone, the marketplace for online electronic products has grown noticeably. Today, you’ll find practically virtually any electronic system and devices on the Internet, including cameras and camcorders to computer pieces and video games consoles.

  2. Hello there I am so grateful I found your blog, I really found you by mistake, while I was searching on Digg for something else, Anyways I am here now and would just like to say thanks for a marvelous post and a all round thrilling blog (I also love the theme/design), I don’t have time to go through it all at the moment but I have bookmarked it and also added in your RSS feeds, so when I have time I will be back to read a lot more, Please do keep up the superb work.

  3. There’s one in particular that I ended up joining because it was somewhat close to my house, the price was right, and I liked the relatively easy going’ attitude of those who belonged to the club. While this system is sure to spark the interest of prospective indie developers and fans of indie games, you can imagine this type of policy leads to a lot of very poor quality titles littering the marketplace. I stood there with my head against the door and my gut at my.