পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

0
491
হিজরি ১২ রবিউল আউয়াল আজ। বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর জন্ম ও ওফাত দিবস। ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের এ দিনে মক্কার কুরাইশ বংশে মা আমেনার ঘরে জন্মলাভ করেন তিনি। নিরঙ্কুশ তৌহিদ ও সাম্য-মৈত্রীর শিক্ষা প্রদান শেষে ৬৩ বছর বয়সে ৬৩২ খ্রিস্টাব্দে ১১ হিজরির ঠিক এ দিনেই তিনি আল্লাহ তায়ালার ডাকে সাড়া দিয়ে মাওলার সান্নিধ্যে গমন করেন।
পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হসিনা পৃথক বাণী প্রদান করেছেন।
এ দিনটি উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়েছে।
শুক্রবার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে বিভিন্ন আয়োজন শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে- ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন বাদ মাগরিব বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব পাশে ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিল। দেশবরেণ্য পীর-মাশায়েখ ও ওলামায়ে কেরামরা উক্ত মাহফিলে বয়ান করবেন।
পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ মসজিদুল জামিয়ায় বাদ জোহর আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।
এ ছাড়া সরকারি, আধা-সরকারি ভবন, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি ভবন ও সশস্ত্র বাহিনির সব স্থাপনায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। জাতীয় পতাকা ও ‘কালিমা তায়্যিবা’ লিখিত ব্যানার ঢাকা মহানগরীর গুরুত্বপূর্ণ ট্রাফিক আইল্যান্ড ও লাইট পোস্টে প্রদর্শন করা হচ্ছে। ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে রাতে সরকারি ভবন ও সামরিক গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় আলোক সজ্জা করা হবে। সারাদেশে সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, সশস্ত্র বাহিনি বিভাগ, বেসরকারি সংস্থাগুলোতে হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জীবন ও কর্মের ওপর আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। দেশের সব হাসপাতাল, কারাগার, সরকারি শিশু সদন, বৃদ্ধ নিবাস, মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে উন্নতমানের খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস ও মিশনগুলোতে যথাযথভাবে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালন করা হবে।
এ দিকে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ৩ ডিসেম্বর ঢাকায় জশনে জুলুস ও ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আন্তর্জাতিক শান্তি মহাসমাবেশ করবে আঞ্জুমানে রহমানীয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া। গত ৩০ বছর ধরে ঢাকায় ঈদে মিলাদুন্নবীর (সা.) দিনে এ আয়োজন করে আসছে তারা।
ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে আন্তর্জাতিক মহাসমাবেশে সভাপতিত্ব করবেন চট্টগ্রাম ফটিকছড়ি মাইজভাণ্ডারী দরবার শরীফের পীর মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল-হাসানী ওয়াল হোসাইনী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। এ ছাড়া, দেশ-বিদেশের ধর্মীয় নেতা, বুদ্ধিজীবী, সুফি ও দার্শনিকরা উপস্থিত থাকবেন।