নিজ গ্রামে এমপি লিটনের জানাজা বাদ আসর

0
134

অনলাইন ডেস্ক :

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য (এমপি) মো. মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের জানাজা নামাজ বাদ আসর সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা আবদুল হক কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

লিটনের বড় ভাই মো. শহিদুল ইসলাম জানান, সোমবার সকাল ১০টায় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মরদেহ গ্রামের বাড়ী সুন্দরগঞ্জের সাহাবাজে (মাস্টারপাড়া) নেওয়া হবে।

বাদ আসর তৃতীয় জানাজা বামনডাঙ্গা আবদুল হক কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। পরে চতুর্থ জানাজা নিজ বাড়ি চত্ত্বরে অনুষ্ঠিতের পর সেখানে সর্বস্তরের জনসাধারণ তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন। পরে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

এর আগে, এমপি লিটনের প্রথম জানাজা নামাজ রোববার দুপুর পৌনে ১টায় রংপুর পুলিশ লাইন্স অ্যান্ড স্কুল মাঠে সম্পন্ন হয়। জানাজা শেষে মরদেহ হেলিকাপ্টারে করে ঢাকায় নেয়া হয়। ঢাকার বারডেমের হিম ঘরে মরদেহ রাখা হয়েছে।

এদিকে লিটন হত্যার প্রতিবাদে ও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবীতে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা সুন্দরগঞ্জ। ঘটনার পর থেকে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী বিক্ষোভ, হরতাল, অবরোধ কর্মসূচি অব্যহত রেখেছে। সোমবার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় অর্ধদিবস হরতালের ডাক দিয়েছে  বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতিয়ার রহমান জানান, সোমবার সকাল ১০টার পর এমপি লিটনের লাশ হেলিকাপ্টারে করে সুন্দরগঞ্জে পৌঁছাবে। জানাজা ও দাফন সুষ্ঠভাবে সম্পন্নের লক্ষে পুরো উপজেলায় বিজিবি ও পুলিশ টহল জোরদার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে গুরুতর আহত হন এমপি লিটন। পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় লিটনের বোন তাহমিদা বুলবুল অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামি করে রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ এ পর্যন্ত ১৮ জনকে আটক করে।

এস এম পলাশ